বেশি দামে সার বিক্রি করায় ব্যবসায়ীকে কারাদণ্ড

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ঠাকুরগাঁও
প্রকাশিত: ০৮:২৭ পিএম, ১৮ নভেম্বর ২০২০

 

ঠাকুরগাঁওয়ে অবৈধভাবে বেশি দামে সার বিক্রি করার অপরাধে ওমর ফারুক (৩৫) নামে এক ব্যবসায়ীকে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বুধবার (১৮ নভেম্বর) বিকেলে সার ও কীটনাশকের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল কাইয়ুম খান।

এ সময় তিনি ঠাকুরগাঁওয়ের বরুনাগাঁও মোড়ের মেসার্স ফারুক ট্রেডার্সে অভিযান চালিয়ে দোকানের মালিক ওমর ফারুককে সাতদিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও দুইদিনের কারাদণ্ড দেন।

সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল কাইয়ুম খান বলেন, মেসার্স ফারুক ট্রেডার্সের মালিক ওমর ফারুক সার বিক্রির সময় গ্রাহকদের কোনো প্রকার বিক্রয় রশিদ প্রদান করেন না। তিনি যেখান থেকে সার ও কীটনাশক ক্রয় করে আনেন সেখানকারও কোনো রশিদ আমাদের দেখাতে পারেননি। এছাড়াও সার বিক্রির কোনো খুচরা ও পাইকারি ডিলার লাইসেন্স বা বিসিআইসির কোনো নিবন্ধন নেই তার। অবৈধভাবে বেশি দামে সার ও কীটনাশক বিক্রির অপরাধে তাকে সাতদিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও দুইদিনের কারাদণ্ড দেয়া হয়। পরে ওমর ফারুককে আটক করে কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

ঠাকুরগাঁও জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক আফতাব হোসেন জানান, জেলায় কোনো সারের ঘাটতি নেই। পর্যাপ্ত পরিমাণে সার মজুত আছে। কিছু অসাধু ব্যবসায়ী সারের দাম বৃদ্ধি করছে। এ জন্য জেলা প্রশাসন ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের কর্মকর্তারা তৎপর আছেন। জনস্বার্থে এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

এ সময় ঠাকুরগাঁও জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক আফতাব হোসেন, সদর উপজেলা সার পরিদর্শক মনোয়ার হোসেন ও পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

তানভীর হাসান তানু/আরএআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]