গোয়ালন্দে ৬ নারী মাদক ব্যবসায়ীর আত্মসমর্পণ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি রাজবাড়ী
প্রকাশিত: ০৬:০১ পিএম, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া পুড়াভিটা এলাকার ছয় নারী মাদক ব্যবসায়ী আত্মসমর্পণ করেছে।

বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর) দুপুরে তারা গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল তায়াবীরের কাছে আত্মসমর্পণ করেন।

আত্মসমর্পণ করা মাদক ব্যবসায়ীরা হলেন, গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া পুড়াভিটা এলাকার সোবাহান শেখের স্ত্রী শাহনাজ বেগম (৩৮), ইব্রাহিম প্রামাণিকের স্ত্রী লাইলী বেগম (২৮), জামাল বিশ্বাসের মেয়ে সাথী আক্তার (৪০), কাজী আরিফের স্ত্রী রোজিনা বেগম (৫০), আজমত শেখের স্ত্রী বেবী খাতুন (৫৫) ও মিজানুর রহমানের স্ত্রী রহিমা খাতুন (৬৫)।

জানা যায়, জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া যৌনপল্লী সংলগ্ন পুড়াভিটা এলাকা দীর্ঘদিন ধরে মাদকের স্পট হিসেবে পরিচিত। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নিয়মিত অভিযানে প্রতিনিয়ত মাদক উদ্ধার ও ব্যবসায়ীদের আটক করা হলেও পরিস্থিতির তেমন উন্নতি হচ্ছিল না। এ পরিস্থিতিতে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চি‎হিৃত ছয় মাদক ব্যবসায়ীকে আত্মসমর্পণ করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ নেন। যার প্রেক্ষিতে তারা আত্মসমর্পণ করেন।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর জানান, আত্মসমর্পণ করা ছয়জনের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে ৫-৮টি করে মাদক মামলা রয়েছে। বিভিন্ন সময় তারা আটক হলেও জামিনে বের হয়ে আবার মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েন। ভবিষ্যতে তারা কখনো মাদক বেচা-কেনায় সম্পৃক্ত হবে না অঙ্গিকার করে মুছলেকা দিয়েছে। তাদেরকে পুনর্বাসনের জন্য বিভিন্ন পর্যায়ে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন বলেও জানান তিনি।

রুবেলুর রহমান/এএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]