স্ত্রীর মৃত্যুর খবর শুনে মারা গেলেন স্বামীও

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পটুয়াখালী
প্রকাশিত: ০৫:০৫ পিএম, ১৪ জানুয়ারি ২০২১
ফাইল ছবি

অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন নাদিয়া আক্তার কলি (২০)। ওই অসুস্থতায় না ফেরার দেশে চলে যান তিনি। এ খবর পৌঁছে স্বামী মোস্তফা আকনের (২৭) কাছে। শুনেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) সকালে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

মারা যাওয়া দম্পতি গলাচিপা উপজেলার আমখোলা ইউনিয়নের দক্ষিণ-পশ্চিম বাঁশবুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা।

পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, মৃত নাদিয়া সকাল ৭টা ৫০ মিনিটে হাসপাতালে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় গাইনি ওয়ার্ডে ভর্তি হন। ৮টা ১০ মিনিটে তিনি মারা যান। এর আগে ৬ জানুয়ারি শহরের মায়ো ক্লিনিকে সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে পুত্রসন্তানের জন্ম দেন নাদিয়া।

নিহতের স্বজন সাদ্দাম হোসেন বলেন, বুধবার (১৩ জানুয়ারি) রাতে স্ত্রী নাদিয়া আক্তার কলি অসুস্থ হলে তাকে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার সকালে স্বামী মোস্তফা আকন স্ত্রীর জন্য হাসপাতালের সামনের দোকানে ওষুধ কিনতে যান। মোবাইলে স্ত্রীর মৃত্যুর খবর শুনে তিনিও মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

পারিবারিক সূত্র জানায়, ছয় বছর আগে মোস্তফা আকনের সঙ্গে পটুয়াখালী জেলা শহরের টাউন কালিকাপুর এলাকায় মৃত মকবুল হোসেনের মেয়ে নাদিয়া আক্তার কলির বিয়ে হয়। মোস্তফা শহরের ফজিলাতুননেছা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে খণ্ডকালীন ইংরেজি শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।
বিকেলে জানাজা শেষে দম্পতিকে গ্রামের বাড়িতে দাফন করার কথা রয়েছে।

মহিব্বুল্লাহ চৌধুরী/এসআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]