কথা বলা পাখির দাবিদার দুপক্ষ, থানায় হাজির দম্পতি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ০৯:৩৪ পিএম, ১৭ জানুয়ারি ২০২১

সাতক্ষীরায় কথা বলতে পারা একটি পোষা পাখির দাবি করেছে দুই পক্ষ। এর মধ্যে পাখিটি নিজেদের দাবি করে দেবহাটা থানায় অভিযোগ দিয়েছেন ফয়সাল রাব্বী ও সাবিকুন নাহার দম্পতি। রোববার (১৭ জানুয়ারি) বিকেলে থানায় লিখিত অভিযোগ করেন তারা।

অভিযোগকারী ফয়সাল রাব্বী দেবহাটা উপজেলার রত্নেশ্বরপুর গ্রামের সাজেদ হোসেনের ছেলে।

লিখিত অভিযোগে তিনি জানান, ২০২০ সালের ৬ জুন ঢাকা থেকে অস্ট্রেলিয়ান ককাটেল জাতের পাখির একটি বাচ্চা বাড়ি নিয়ে আসেন তিনি। এরপর স্বামী-স্ত্রী মিলে দীর্ঘদিন পাখিটি লালন-পালন করে কথা বলতে শেখান। পাখিটি সঙ্গে নিয়ে তিনি শ্বশুর বাড়ি গোপাখালীতে যান। সেখানে থাকাকালীন গত ১০ অক্টোবর পাখিটি হঠাৎ উধাও হয়। সেই থেকে পাখিটি খুঁজছিলেন তিনি।

ফয়সাল রাব্বী বলেন, ‘সম্প্রতি গাজীরহাট গ্রামের মোটরভ্যান চালক বিল্লালের বাড়িতে পাখিটির সন্ধান মেলে। তবে পাখিটি ফেরত দিতে চাইছেন না ভ্যানচালক বিল্লাল। তাই বাধ্য হয়ে পোষা পাখিটি ফিরে পেতে থানায় অভিযোগ দিয়েছি।’

পাখি ফেরত না দেয়ার অভিযোগের বিষয়ে বিল্লাল হোসেন বলেন, ‘পাখিটি ছোট বয়সে আমি পেয়েছি। লালন-পালন করে বড় করেছি। ওটা আমার পাখি, তাদের না। এলাকার চেয়ারম্যান-মেম্বার নিয়ে সালিশ-বৈঠক হয়েছে। পাখিটা আমার সবাই জানে। আমার পাখি আমি কাউকে দেব না।’

এ বিষয়ে দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বিপ্লব কুমার সাহা বলেন, ‘অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

আকরামুল ইসলাম/ইএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]