কঙ্কাল উদ্ধারের আড়াই বছর পর উদঘাটন হলো রহস্য

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পিরোজপুর
প্রকাশিত: ০৯:১৭ এএম, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১
ফাইল ছবি

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় অজ্ঞাত কঙ্কাল উদ্ধারের আড়াই বছর পর ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে যুবক হত্যার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। এছাড়া হত্যায় জড়িত দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতাররা হলেন- রাসেল ওরফে নাসির (২৮) ও মিরাজ (৩১)। নাসির কাঁঠালিয়া উপজেলার মরিচবুনিয়া গ্রামের মৃত সামছুল হকের ছেলে ও মিরাজ পাটিখালঘাটা গ্রামের শাহজাহান জমাদ্দারের ছেলে।

গত ১৮ ফেব্রুয়ারি তাদের গ্রেফতার করা হলেও তদন্তের স্বার্থে পুলিশ রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

তদন্তকারী কর্মকর্তা মঠবাড়িয়া থানার এসআই আসলাম জানান, ২০১৮ সালের ১৪ জুলাই উপজেলার মিরুখালী ডিগ্রী কলেজের পশ্চিম দিকে রাস্তার পাশে কৃষক আবু সালেহর পরিত্যাক্ত ডোবা থেকে অজ্ঞাত একটি কঙ্কাল উদ্ধার করা হয়। পরে কঙ্কালের ডিএনএ পরীক্ষায় পার্শ্ববর্তী ঝালকাঠি জেলার কাঁঠালিয়া উপজেলার মরিচবুনিয়া এলাকার অপহৃত জিয়া নামে এক যুবকের পরিচয় শনাক্ত হয়।

এ ঘটনায় নিখোঁজ জিয়ার ভাই জুয়েল হাওলাদার বাদী হয়ে অপহরণ করে হত্যা ও লাশ গুমের অভিযোগ এনে ৮ জনের নামে ও অজ্ঞাত ৪ জনকে আসামি করে মঠবাড়িয়া থানায় মামলা করেন। আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারে মাধ্যমে গত বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) ঝালকাঠি এলাকা থেকে এজাহারভুক্ত আসামি ও মূল ঘাতক রাসেল ওরফে নাসির ও মিরাজকে গ্রেফতার করা হয়।

মঠবাড়িয়া থানার ওসি মাসুদুজ্জামান বলেন, জমি-জমা ও পূর্ব শত্রুতার জের ধরে জিয়াকে অপহরণ করে মঠবাড়িয়া এলাকায় এনে হত্যা করা হয়। গ্রেফতারকৃত দুই আসামিকে আদালতে পাঠিয়ে ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে।

এফএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]