চাকরির লোভ দেখিয়ে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বগুড়া
প্রকাশিত: ০৩:৫৯ পিএম, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১

চাকরি দেয়ার কথা বলে বগুড়ার ধুনট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হাই খোকনের বিরুদ্ধে তিন লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে চাকরি প্রত্যাশীর বড় ভাই আব্দুল হাই লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

অভিযোগে ধুনট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হাই খোকন ও উপজেলার মহিশুরা গ্রামের সানোয়ার হোসেনের ছেলে গোপালনগর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সেলিম রেজাকে আসামি করা হয়েছে।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ‘অভিযোগটি তদন্তর করার জন্য একজন পুলিশ কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তদন্তে সত্যতার প্রমাণ পাওয়া গেলে আইনানুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, কোনাগাঁতী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরি কাম-নৈশপ্রহরী পদে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে ওই গ্রামের জসীম উদ্দিনের ছেলে শামীম রেজার কাছ থেকে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হাই খোকন তিন লাখ টাকা নেন। প্রায় তিন বছর আগে মহিশুরা গ্রামের স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা সেলিম রেজার মাধ্যমে তিনি এই টাকা গ্রহণ করেন। পরবর্তীতে ওই পদে চাকরি পাইয়ে দিতে ব্যর্থ হয়েছেন আব্দুল হাই খোকন।

অভিযোগকারী আব্দুল হাই বলেন, ‘সেলিম রেজার মাধ্যমে উপজেলা চেয়ারম্যানকে তিন লাখ টাকা দিয়েছি। কিন্ত আমার ছোট ভাইকে চাকরি দিতে ব্যর্থ হয়েছেন তিনি। পরে ওই টাকা ফেরত না দেয়ার শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে থানায় অভিযোগ দিয়েছি। এছাড়া বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) টাকা ফেরত চাইতে গেলে সেলিম রেজা টাকা ফেরত না দিয়ে মহিশুরা বাজারস্থ তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আটক রেখে আমাকে ও আমার বাবাকে হত্যার হুমকি দিয়েছেন।

ধুনট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হাই খোকন বলেন, ‘ওই যুবককে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা। আমার বিরুদ্ধে যড়যন্ত্রমূলক ভাবে থানায় মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছে।’

আরএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]