যৌন হয়রানির অভিযোগে প্রধান শিক্ষক বরখাস্ত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ০৪:৫৮ পিএম, ০২ মার্চ ২০২১

অর্থ আত্মসাৎ ও যৌন হয়রানির অভিযোগে টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও পচাসারুটিয়া মেহের আলী খান উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. ফরহাদ আলীকে (৪৫) স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় স্কুল পরিচালনা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

মঙ্গলবার (২ মার্চ) এর সত্যতা নিশ্চিত করেন স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও প্রতিষ্ঠাতা ডা. তাহেরুল ইসলাম।

তিনি জানান, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান একটি পবিত্র স্থান। এখানে কোমলমতি ছাত্রছাত্রীরা লেখাপড়া করে। জেনে শুনে একজন অপরাধীকে বহাল রাখতে পারি না। প্রতিষ্ঠানের সুনাম অক্ষুণ্ন রাখতে এবং শিক্ষার্থীদের ফের স্কুলমুখী করতে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

জানা গেছে, উপজেলার এক হতদরিদ্র কাঠমিস্ত্রির স্ত্রীকে চাকরি দেয়ার কথা বলে সম্পর্ক গড়ে তোলেন পচাসারুটিয়া মেহের আলী খান উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. ফরহাদ আলী। তাকে মোবাইল ফোনে ও সরাসরি একাধিকবার শারীরিক সম্পর্কের জন্য প্রস্তাব দেন। এরপর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই নারীর সঙ্গে শিক্ষক ফরহাদ আলীর আপত্তিকর কথোপকথনের একাধিক অডিও ভাইরাল হয়।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নারী টাঙ্গাইলের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নাগরপুর আমলি আদালতে প্রধান শিক্ষকসহ তিনজনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত চার-পাঁচজনকে আসামি করে একটি মামলা করেন।

বিষয়টি জানাজানি হলে গত বছরের ২১ ডিসেম্বর প্রধান শিক্ষককে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে স্কুল পরিচালনা কমিটি। পরে অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় তাকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত নাগরপুর উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও পচাসারুটিয়া মেহের আলী খান উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. ফরহাদ আলীর মোবাইল ফোনে একাধিকবার চেষ্টা করেও যোগাযোগ সম্ভব হয়নি।

আরিফ উর রহমান টগর/এসজে/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]