ফেনীতে বেড়েছে ডায়রিয়ার প্রকোপ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফেনী
প্রকাশিত: ০৮:২০ পিএম, ০৬ মার্চ ২০২১

ফেনীতে গত কয়েকদিনে বেড়েছে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। ফেনী জেনারেল হাসপাতালে প্রতিদিন ২৫-৩০ ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগী ভর্তি হচ্ছেন।

এদিকে হাসপাতালে জায়গার অভাবে মেঝে, বারান্দা ও ওয়ার্ডের বাহিরে চেয়ারে রোগীদের চিকিৎসা দিচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। একইভাবে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতেও ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। আক্রান্তদের মাঝে আট মাস থেকে পাঁচ বছর বয়সের শিশুর সংখ্যা বেশি।

২৫০ শয্যার ফেনী জেনারেল হাসপাতাল ঘুরে দেখা গেছে, ফেব্রুয়ারির শুরু থেকে হঠাৎ করে জেলায় ডায়রিয়ার প্রকোপ বাড়ে। ফলে হাসপাতালের ডায়রিয়া ওয়ার্ডে স্থান সংকুলান না হওয়ায় রোগীদের ঠাঁই হয় বারান্দা ও মেঝেতে। আবার কেউ কেউ ওয়ার্ডের বাহিরে রাখা চেয়ারে বসে বসেই চিকিৎসা নিচ্ছেন। এ অবস্থায় সাধ্যমত চিকিৎসা দেয়ার চেষ্টা করছেন নার্স, চিকিৎসক এবং কর্মচারীরা।

হাসপাতালের ডায়রিয়া ইউনিটের ইনচার্জ আলো রাণী নাথ জানান, ডায়রিয়া ওয়ার্ডে অনুমোদিত বেড ২০টি। ফেব্রুয়ারি থেকে ৫ মার্চ প্রতিদিনই এ ইউনিটে অতিরিক্ত রোগী ভর্তি রয়েছে। কখনো কখনো দুই থেকে তিনগুণ রোগীকেও চিকিৎসা দিতে হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, গত এক সপ্তাহে এ বিভাগে ভর্তি হয়েছে অন্তত দুইশ রোগী। প্রতিদিনই ছিল অতিরিক্ত রোগী। তাদের মধ্যে বেশিরভাগ শিশু। জেলার সব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেও একই অবস্থার কথা জানান তিনি।

শনিবার (৬ মার্চ) ডায়রিয়ায় আক্রান্ত শাহরিয়ার নামের ১০ মাসের শিশুকে নিয়ে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে আসেন এক গৃহবধূ। ওয়ার্ডের বারান্দায় অতিরিক্ত বেড রাখার স্থানেও জায়গা পাননি। তাই হাসপাতালের সামনে বসার চেয়ারে বসে সন্তানকে স্যালাইন দিতে দেখা যায় তাকে।

ফেনী জেনারেল হাসপাতালের আরএমও ইকবাল হোসেন ভূঞা জানান, আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে ডায়রিয়ার প্রকোপ বেড়েছে। এ সময় শিশুদের প্রতি যত্নশীল থাকতে হবে।

এএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]