ধর্ষণের পর ভিডিও ধারণ স্কুলছাত্রীর, গ্রেফতার ৬

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি চুয়াডাঙ্গা
প্রকাশিত: ০৪:০৩ পিএম, ২০ এপ্রিল ২০২১

চুয়াডাঙ্গায় স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর অশ্লীল ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে চাঁদাবাজির ঘটনায় ছয়জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৯ এপ্রিল) দিনগত রাত ২টার দিকে শহরের কেদারগঞ্জ এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার কেদারগঞ্জ নতুন পাড়ার মৃত গোলাম হোসেনের ছেলে জুবায়ের হোসেন জীম (১৮), একই পাড়ার মনোয়ার হোসেনের ছেলে আপন হোসেন (১৭), জীবননগর বাসস্ট্যান্ড পাড়ার মৃত আবু শেখের ছেলে শিমরান হোসেন (১৭), মুন্সিপাড়ার কিতাব আলীর ছেলে রাকিব হোসেন (১৮), পলাশপাড়ার আনোয়ার হোসেনের ছেলে রায়হান উদ্দিন (১৭) ও মহিলা কলেজ পাড়ার আশরাফুল ইসলাম শেখের ছেলে ইমরান শেখ (১৭)।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী পরিবার সূত্র জানায়, ৮ মাস আগে অষ্টম শ্রেণির ওই ছাত্রীর (১৪) সঙ্গে ফেসবুকের মাধ্যমে জুবাইর হোসেন জীমের (১৮) বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে। এর সূত্র ধরে গত ২৫ মার্চ দুপুরে জীমসহ কয়েকজন যুবক ছাত্রীকে তুলে নিয়ে মহিলা কলেজপাড়ার একটি বাড়িতে আটকে রাখে। সেখানে জীম তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ধারণ করেন। ওইসব ছবি ও ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে ভুক্তভোগীর কাছে চাঁদা দাবি করে চক্রটি। কোনো উপায় না দেখে ছাত্রী লুকিয়ে ১৬ হাজার টাকা, একটি স্বর্ণের চেইন ও ব্রেসলেট দিয়ে দেয়। সোমবার তারা আরও এক লাখ টাকা দাবি করলে বিষয়টি ছাত্রী তার স্বজনদের জানায়। রাতে ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জিহাদ ফকরুল আলম খান বলেন, গ্রেফতারকৃতদের মঙ্গলবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। স্কুলছাত্রীর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সালাউদ্দীন কাজল/আরএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]