ঘুম ভেঙে যাওয়ায় শিশুর মাথায় ফুটন্ত ডাল ঢেলে দিলেন চাচা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি চুয়াডাঙ্গা
প্রকাশিত: ০৯:৫০ এএম, ২৩ এপ্রিল ২০২১

পূর্ব বিরোধের জের ধরে রাব্বি হোসেন (৬) নামে এক শিশুর মাথায় ফুটন্ত গরম ভাত ঢেলে দিয়েছেন আপন বড় চাচা আব্দুর রশিদ। এতে শিশুটির ঘাড়, কানসহ শরীরের বিভিন্ন স্থান ঝলসে গেছে। অবুঝ শিশুটি এখন হাসপাতালের বিছানায় কাতরাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার রাতে শিশুটিকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এর আগে সোমবার (১৯ এপ্রিল) চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার ভাংবাড়িয়া গ্রামের মোল্লাপাটায় এই নির্মম নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। আহত শিশু রাব্বি ওই এলাকার লালু মিয়ার ছেলে।

শিশুটির পরিবারের লোকজন জানান, লালু মিয়া ৬ বছর ধরে মালয়েশিয়া থাকেন। লালুর বড় ভাই আব্দুর রশিদের সাথে ছোটখাটো বিষয়ে বিরোধ চলে আসছিল তার স্ত্রী রোমানা খাতুনের। গত সোমবার সকালে শিশু রাব্বি বাড়ির মধ্যে খেলছিল।

শিশুটির চিৎকারে পাশের ঘরে থাকা চাচা রশিদের ঘুম ভেঙে যায়। এ সময় চুলার ওপর থেকে ফুটন্ত ডালের হাড়ি নিয়ে শিশু রাব্বির মাথায় ঢেলে দেন আব্দুর রশীদ। এতে শিশুটির মাথা, ঘাড় ও কানসহ শরীরে বিভিন্ন স্থান ঝলসে যায়।

ঘটনার পর শিশু রাব্বিকে উদ্ধার করে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা করা হয়। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে বৃহস্পতিবার রাতে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে পরিবারের সদস্যরা।

রাব্বির মা রোমানা খাতুন জানান, আমার স্বামীর ভাই রশিদের সাথে আমাদের বিরোধ চলে আসছে। কিন্তু রাব্বি তো অবুঝ শিশু। সে তো কোনো অপরাধ করেনি। আমি এর বিচার চাই। আমি থানায় গিয়ে রশিদের নামে মামলা করব।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের সিনিয়র কনসালটেন্ট সার্জারি ডা. ওয়ালিউর রহমান নয়ন জানান, শিশুটির অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

আলমডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর কবির বলেন, বিষয়টি খুব দুঃখজনক। এ বিষয়ে এখনও কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সালাউদ্দীন কাজল/এফএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]