দুর্নীতির দায়ে পাংশা উপজেলা চেয়ারম্যান ওদুদ বহিষ্কার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি রাজবাড়ী
প্রকাশিত: ০৯:২৪ পিএম, ০৬ মে ২০২১

বিভিন্ন অনিয়ম-দুর্নীতির দায়ে রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ফরিদ হাসান ওদুদকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে স্থানীয় সরকার বিভাগ।

সেই সঙ্গে উপজেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যানকে উপজেলার সব কার্যক্রম পরিচালনাসহ আর্থিক ক্ষমতা প্রদান করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৬ মে) রাত ৮টার দিকে পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আলী এ তথ্য জানান।

এর আগে ৫ মে রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মোহাম্মদ সামসুল আলম স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এসব তথ্য জানায় স্থানীয় সরকার বিভাগ।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদ হাসান ওদুদের বিরুদ্ধে উপজেলা পরিষদের অধিগ্রহণকৃত জমিতে নির্মিত ১০টি দোকান নির্মাণ।

বলা হয়েছে, তার আপন ভাই ও ফুফাতো ভাইয়ের নামে বরাদ্দ দেয়া, রাজস্ব তহবীল ব্যবহারের নির্দেশিকা অনুসরণ না করে গরীব-মেধাবী শিক্ষার্থীদের পরিবর্তে নিজস্ব লোকের সন্তানদের মধ্যে বৃত্তি প্রদানের মাধ্যমে অর্থ আত্মসাৎ, বয়স্ক ভাতা কর্মসূচি বাস্তবায়ন নীতিমালা (সংশোধিত) ২০১৩ অনুসরণ না করে বয়স্কভাতা প্রদান এবং নিয়ম বহিঃভূতভাবে উপজেলা পরিষদের ফান্ড থেকে পাংশা পৌরসভা এলাকায় প্রকল্প বরাদ্দ দেয়ায় আনীত অভিযোগগুলো বিভাগীয় কমিশনারের তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে।

ফলে পাংশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ফরিদ হাসান ওদুদকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করেছে স্থানীয় সরকার বিভাগ।

পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মাদ আলী জানান, বিকেলে এ সংক্রান্ত চিঠি পেয়েছেন। চিঠির মাধ্যমে উপজেলা চেয়ারম্যান ফরিদ হাসান ওদুদকে সাময়িক বহিষ্কার বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছেন।

রুবেলুর রহমান/এমআরএম/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]