অনশনের ৫ দিন পর প্রেমিকের সঙ্গেই হলো বিয়ে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সিরাজগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৬:০৬ পিএম, ২৮ মে ২০২১

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে পাঁচ দিন অনশনের পছন্দের মানুষটির সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৭ মে) রাতে উপজেলার বাঙ্গালা ইউনিয়নের দক্ষিণ গাইলজানি গ্রামে ১০ লাখ টাকা কাবিনে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার বাঙ্গালা দক্ষিণ গাইলজানি গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে কলেজছাত্র মো. রানার (২০) সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল একই গ্রামের আব্দুল কাদেরের কলেজপড়ুয়া মেয়ে ময়না খাতুনের। তারা দুজনই স্থানীয় ঘোনা কুচিয়ামারা ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থী। কলেজ পড়াকালীন তাদের প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়। প্রেমের সূত্র ধরে গত রোববার (২৩ মে) রানা তার প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে তাদের বাড়িতে যান। বিষয়টি মেয়ের বাড়ির লোকজন টের পেয়ে রানাকে আটকের চেষ্টা করেন। পরে রানা কৌশলে মেয়ের বাড়ি থেকে পালিয়ে যান। পরে বিষয়টি এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে।

ওইদিন রাতেই বিয়ের দাবিতে প্রেমিক রানার বাড়িতে অনশন শুরু করেন কলেজপড়ুয়া ওই ছাত্রী। এ খবর শুনে প্রেমিক রানা ও বাড়ির লোকজন পালিয়ে যান। গত পাঁচ দিন ধরে বিয়ের দাবিতে অনশনে করা ওই ছাত্রীকে দেখতে প্রতিদিনই বাড়িতে শত শত মানুষ ভিড় করেন। অনেকেই নিজের বাড়ি থেকে খাবার নিয়ে এসে তরুণীকে খেতে দিয়েছেন। একই সঙ্গে, রানার সঙ্গে বিয়ে না হলে আত্মহত্যার হুমকিও দেন ওই ছাত্রী।

বিয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে শুক্রবার (২৮ মে) দুপুরে বাঙ্গালা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান সোহেল রানা জানান, বেশ কয়েকদিন ধরে মেয়েটি রানাদের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অনশন করছিলেন। বিষয়টি সমাধানের জন্য বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ওই ছেলের বাড়িতে গিয়ে মেয়ে ও ছেলের পরিবারের সঙ্গে কথা বলা হয়। পরবর্তীদের উভয় পরিবারের সম্মতিক্রমে ১০ লাখ টাকা কাবিনে তাদের বিয়ে সম্পন্ন করা হয়।

ইউসুফ দেওয়ান রাজু/এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]