গাঁজা সেবনে বাধা দেয়ায় কুপিয়ে হত্যা, গণপিটুনিতে হামলাকারী নিহত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মেহেরপুর
প্রকাশিত: ০১:৫১ পিএম, ১২ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৩:৫৩ পিএম, ১২ জুন ২০২১

গাঁজা সেবনে বাধা দেয়ায় মেহেরপুরের মুজিবনগরে জাদুখালি যতারপুর বটতলায় সাইদুর রহমান (৩৫) নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ সময় গণপিটুনিতে নিহত হয়েছেন হামলাকারী মনিরুল ইসলাম (২৪)।

শনিবার (১২ জুন) দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার যতারপুর গ্রামের মাঠে একটি চায়ের দোকানে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, যতারপুর বট তলা মোড়ের একটি চায়ের দোকানের মাচায় বসে যতারপুর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে মনিরুল ইসলাম (৩৪) গাঁজা সেবন করছিল। এ সময় স্বেচ্ছাসেবক লীগ মুজিবনগর উপজেলার সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক ও একই গ্রামের বাসিন্দা সাইদুর রহমান তাকে নিষেধ করেন। এতে রাগান্বিত হয়ে মনির হাতে থাকা হাসুয়া দিয়ে সাইদুরের গলায় কোপ দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান সাইদুর রহমান। এ সময় আশপাশে থাকা লোকজন ছুটে এসে মনিকে গণপিটুনি দিলে ঘটনাস্থলেই তারও মৃত্যু হয়।

মুজিবনগর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল হাসেম বলেন, ‘মরদেহ দুটি উদ্ধার এবং ঘটনাটির তদন্ত করে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।’

পুলিশ সুপার এস এম মুরাদ আলী জানান, যাদুখালী যতারপুর বটতলা মাঠের মোড়ে একটি চায়ের দোকানে গল্প করছিলেন সাইদুর, মনিরুলসহ আরও বেশ কয়েকজন কৃষক। এ সময় মনিরুল গাঁজা সেবন করছিলেন। বাধা দেয়ায় সাইদুর রহমানের সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে মনিরুলের কাছে থাকা একটি হাসুয়া দিয়ে সাইদুরের গলায় কোপ দেন মনিরুল। ঘটনাস্থলেই মারা যান সাইদুর। সেখান থেকে পালানোর সময় জনতার হাতে ধরা পড়ে মনিরুল। গণপিটুনিতে সেও ঘটনাস্থলেই মারা যান। বিষয়টি সিআইডি ও পুলিশের একটি দল তদন্ত করছে।

জেলা প্রশাসক ড. মনসুর আলম বলেন, ‘সমাজে আর কোনো মনিরুল তৈরি হতে দেয়া যাবে না। মাদক ব্যবসায়ীদের তালিকা করে আইনের আওতায় আনা হবে।’

আসিফ ইকবাল/এএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]