ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে নেই পরিবহনের চাপ, যাত্রী সংকট

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ০৯:১৭ পিএম, ২২ জুলাই ২০২১

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে নেই যাত্রী ও পরিবহনের চাপ। কোথাও সৃষ্টি হয়নি যানজট কিংবা যান চলাচলে ধীরগতি। ফলে মহাসড়কে ভোগান্তি ছাড়াই চলাচল করছে যাত্রী ও পরিবহন।

বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) দিনভর ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের এলেঙ্গা, পৌলী, রসুলপুর, রাবনা, ঘারিন্দা, আশেকপুর ও তারটিয়া বাইপাস এলাকা ঘরে এমন চিত্র দেখা যায়।

সরেজমিনে এসব সড়কে দূরপাল্লার বাস, ট্রাক, পিকআপ, মাইক্রোবাস, প্রাইভেট কারসহ সিএনজি চলাচল করতে দেখা গেছে। তবে কোনো পরিবহনেই দেখা যায়নি অস্বাভাবিক যাত্রী। পথে পথে থামিয়ে যাত্রী নিতে দেখা গেছে বাসগুলোকে।

jagonews24

রাবনা বাইপাসে কথা হয় সিরাজগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা রোকন ট্রাভেলস্ বাস সহকারী রফিকের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘আগামীকাল থেকে টানা ১৪ দিনের কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হলেও সড়কে যাত্রী নেই। এ কারণে পথ থেকে ঢাকা ও চন্দ্রার যাত্রী নেয়া হচ্ছে।’

আশেকপুর বাইপাসে অবস্থানরত সিএনজি চালক লিয়াকত বলেন, ‘চন্দ্র পর্যন্ত যাত্রী আনা নেয়া করছি। জনপ্রতি দুইশত টাকা ভাড়া নিচ্ছি। তবে টানা আড়াই ঘণ্টা ধরে দাঁড়িয়ে থেকে মাত্র দুইজন যাত্রী পেয়েছি। এতে যাতায়াতের খরচই উঠবেনা।’

jagonews24

নারায়ণগঞ্জের একটি কারখানায় কর্মরত টাঙ্গাইলের শ্রমিক সজীব বলেন, ‘ঈদে তিনদিনের ছুটি পেয়েছিলাম। আজ ছুটি শেষ। নারায়নগঞ্জ যাওয়ার জন্য প্রায় আধাঘণ্টা ধরে বাসের অপেক্ষা করছি। বাস পাচ্ছিনা।’

আশেকপুর বাইপাস এলাকায় দায়িত্বরত টাঙ্গাইল ট্রাফিক পুলিশ বিভাগের এসিস্ট্যান্ট টাউন সাব-ইন্সপেক্টর (এটিএসআই) হেলাল উদ্দিন বলেন, ‘দুপুর থেকে মহাসড়কে দায়িত্ব পালন করছি। খুব স্বাভাবিক গতিতে যানবাহন চলাচল করছে। কোথাও কোনো যানজট বা ধীরগতি সৃষ্টির খবর পাওয়া যায়নি।’

আরিফ উর রহমান টগর/আরএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]