ইউপি সদস্য বললেন, পাউবোর জমি দখল ‘দোষের কিছু নয়’

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি লক্ষ্মীপুর
প্রকাশিত: ০৭:২২ পিএম, ২৪ জুলাই ২০২১

লক্ষ্মীপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) প্রায় ৪০ শতাংশ জমি দখল করে ইউপি সদস্য জহিরুল ইসলাম খামার স্থাপন করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। তিনি দাবি করেন, খামারের অর্ধেক জমি কিনেছেন। একই সঙ্গে পাউবোর জমি দখল ‘দোষের কিছু নয়’ বলেও মন্তব্য করেন।

জানা যায়, জহিরুল ইসলাম সদর উপজেলার লাহারকান্দি ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার। তিনি ইউনিয়নের চাঁদখালী বাজারের পশ্চিম পাশে ওয়াপদা খালের পাশে খামারের জন্য ঘর নির্মাণ করছেন।

jagonews24

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় তিন ব্যবসায়ী অভিযোগ করেন, ওয়াপদা খাল ভাঙনকবলিত। আগেও জহির খাল ভাঙন রোধে টাকা উত্তোলন করে ‘আত্মসাৎ’ করেছেন। এখন সরকারি জমি ‘দখল’ করে তিনি মুরগির খামার নির্মাণ করছেন। এতে পাশের মাটির সড়কটি নিজের সুবিধার্থে কেটেছেন। সড়কটি বৃষ্টিতে যেকোনো সময় ভেঙে যেতে পারে। তার কারণে এলাকার মানুষ দুর্ভোগে পড়বে। ভয়ে এলাকাবাসী তার অনিয়মের বিরুদ্ধে কথা বলতে পারে না বলে অভিযোগ করেন ওই ব্যবসায়ীরা।

এ প্রসঙ্গে ইউপি সদস্য জহিরুল ইসলাম বলেন, ‘পুরো চাঁদখালী বাজারই পাউবোর জমিতে। খামারের জমি অর্ধেক আমি কিনেছি আর অর্ধেক পাউবোর। বাজারের দোকানিরা যেমন দখল করে আছে তেমনি আমিও দখল করেছি। এটা দোষের কিছু নয়।’

jagonews24

লাহারকান্দি ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকর্তা রুহুল আমিন বলেন, ‘এসিল্যান্ড আমাকে বিষয়টি জানিয়েছেন। তার নির্দেশে আমি ঘটনাস্থলে যাচ্ছি। জমির ব্যাপারে পাউবো কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নেবে। সরকারি রাস্তা কাটার অভিযোগ সত্য হলে, আমি ব্যবস্থা নেব।’

এ ব্যাপারে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ মাসুম বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে পাউবোর সঙ্গে কথা বলা হবে। যদি তাদের জমি হয়, তাহলে সেটি দখলমুক্ত করতে বলা হবে।’

কাজল কায়েস/জেডএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]