নদীতে গোসলে নেমে প্রাণ গেল ৩ বোনের

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রংপুর
প্রকাশিত: ০৭:১৪ পিএম, ০৫ আগস্ট ২০২১
ফাইল ছবি

রংপুরের বদরগঞ্জে ফুপুর বাড়ি বেড়াতে গিয়ে যমুনেশ্বরী নদীতে ডুবে তিন বোনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) বিকেলে উপজেলার কুতুপুর ইউনিয়নের নাটারাম এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

তারা হলেন- উপজেলার বিষ্ণপুর ইউনিয়নের ওসমানপুর এলাকার রবিউল ইসলামের মেয়ে রুবিনা আক্তার (১৬), তার ছোট বোর রাবেয়া বাশরী (১০) ও তাদের জেঠাতো বোন সাইদুল ইসলামের মেয়ে সাদিয়া আক্তার (১১)।

রুবিনা আক্তার ওসমানপুর ফাজিল মাদরাসার দশম শ্রেণি ও রাবেয়া বাশরী সাহেদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী। অন্যদিকে সাদিয়া আক্তার স্থানীয় চেতনা বিদ্যা নিকেতনের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

এলাকাবাসী ও স্বজনরা জানান, এক সপ্তাহ আগে উপজেলার ওসমানপুর থেকে নাটারাম শেখপাড়ায় ফুপু কোহিনুর বেগমের বাড়িতে বেড়াতে যান সাদিয়া, রাবেয়া ও রুবিনা। বৃহস্পতিবার বিকেলে বাড়ির পাশের যমুনেশ্বরী নদীতে গোসল করতে যায় তারা। এক পর্যায়ে নদীর প্রবল স্রোতে পা পিছলে তলিয়ে যায় তারা। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

বাদশা মিয়া নামের তাদের এক চাচা বলেন, ‘এক সপ্তাহ আগে তারা আমার বড় বোন কোহিনুর বেগমের বাড়িতে বেড়াতে যায়। নদীতে গোসলে গিয়ে এমন দুর্ঘটনার শিকার হবে তা আমরা কল্পনাও করতে পারছি না।’

বদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বরত চিকিৎসক এ এইচ এম সানাউল হক বলেন, ‘হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই তাদের মৃত্যু হয়েছে।’

বদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুর রহমান বলেন, ‘কোনো অভিযোগ না থাকায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।’

জিতু কবীর/আরএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]