১৩ শিক্ষার্থীর মধ্যে এলো দুজন, তাদেরই ক্লাস নিলেন শিক্ষক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মৌলভীবাজার
প্রকাশিত: ০৯:৪২ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

সারাদেশের মতো মৌলভীবাজারের রাজনগরে বন্ধের দেড় বছর পর খুলেছে হাওরপাড়ের শাহবাজপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। তবে ছাত্রছাত্রী আসছে না স্কুলটিতে।

বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) স্কুল খোলার পঞ্চম দিনে ওই বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, একজন শিক্ষক ক্লাস নিচ্ছেন। আর ১৩ জন ছাত্রছাত্রীর মধ্যে উপস্থিত হয়েছে মাত্র দুজন। রুটিন অনুযায়ী আজ শুধু পঞ্চম শ্রেণির ক্লাস ছিল।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নয় বছর ধরে একজন শিক্ষকই কর্মরত আছেন ওই বিদ্যালয়ে। তিনি একাই সামলাচ্ছেন শ্রেণি পাঠদান ও অন্যান্য কার্যক্রম। ২০১২ সাল থেকে শূন্য রয়েছে প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকের দুটি পদ।

স্থানীয় অভিভাবকদের অভিযোগ, শিক্ষকদের শূন্যপদ পূরণের বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে একাধিকবার আবেদন করেও লাভ হয়নি। শিক্ষকের অভাবে স্কুলটিতে শিক্ষার্থীর সংখ্যাও কমে গেছে।

স্থানীয় হাসান আহমদ ও বাদল মিয়া জাগো নিউজকে বলেন, শিক্ষক কম থাকায় এলাকার অভিভাবকরা বিদ্যালয়ে ছেলেমেয়েদের পাঠাতে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছেন।

jagonews24

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি আকল আলী বলেন, আমরা উপজেলা শিক্ষা অফিসে অনেক যোগাযোগ করেছি। তারা শুধু আশা দিয়ে রেখেছেন, কোনো শিক্ষক দিতে পারেননি। এতে আমাদের এলাকার কমলমতি ছেলেমেয়েরা শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

স্কুলটির একমাত্র শিক্ষক যোগময় চক্রবর্তী জাগো নিউজকে বলেন, আমি অনেক কষ্ট করে প্যারা শিক্ষকের সমন্বয়ে বিদ্যালয়ের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছি। বিদ্যালয়ে মোট ১১১ জন ছাত্রছাত্রী রয়েছে। পঞ্চম শ্রেণিতে ১৩ জন শিক্ষার্থী থাকলেও বৃহস্পতিবার সায়মন ও খাদিজা নামের দুই শিক্ষার্থী ক্লাসে এসেছে। তবে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি বাড়ানোর ব্যাপারে আমি অভিভাবকদের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছি।

ক্লাস্টারের দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা মাহমুদ হোসাইন জাগো নিউজকে বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমরা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আর্কষণ করেছি। তবে দীর্ঘদিন বিদ্যালয় বন্ধ থাকায় এ বিষয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

আব্দুল আজিজ/এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]