বাঘাইছড়িতে প্রতিপক্ষের গুলিতে জনসংহতি সমিতির নেতা নিহত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি রাঙ্গামাটি
প্রকাশিত: ০৭:০০ পিএম, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে প্রতিপক্ষের গুলিতে নিহত পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির নেতা সুরেশ চন্দ্র চাকমা জীবেশের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৪টার দিকে উপজেলার বঙ্গলতলি এলাকা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন খান বলেন, ভোরে উপজেলার দুর্গম বঙ্গলতলি ইউনিয়নের বি ব্লক এলাকায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। পরে ঘটনাস্থল থেকে দূর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, নিহত সুরেশ চন্দ্র চাকমা জীবেশ জনসংহতি সমিতির পুরনো কর্মী। তিনি সাবেক গেরিলা সংগঠন শান্তিবাহিনীর সদস্য। তিনি উপজেলা কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও সংগঠনের বিচার কমিটির উপজেলা প্রধানের দায়িত্ব পালন করছেন। প্রাণনাশের ভয়ে তিনি নিজের বাড়িতে রাত্রি যাপন করতেন না। শুক্রবার ভারে প্রতিবেশীর বাড়িতে গুলিতে নিহত হলে তার মরদেহ সরিয়ে ফেলে প্রতিপক্ষের লোকজন। পরে বিকেল ৪টার দিকে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (এমএন লারমা) কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-তথ্য ও প্রচার সম্পাদক জুপিটার চাকমা বলেন, তাদের নিজেদের আভ্যন্তরীণ কোন্দলে এ ঘটনা ঘটতে পারে। ওই এলাকাটি সম্পূর্ণ জনসংহতির ঘনিষ্ঠ সংগঠন ইউপিডিএফর নিয়ন্ত্রণাধীন। সেখানে আমাদের পক্ষে প্রবেশ করা কঠিন ও কষ্টসাধ্য। তারা নিজেরাই এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়ে আমাদের ওপর দোষ চাপাতে চাইছে।

শংকর হোড়/আরএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]