আদালতের নিষেধাজ্ঞা ভেঙে গাছ কেটে জমি দখলের চেষ্টা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বগুড়া
প্রকাশিত: ০৯:০৮ এএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১

বগুড়ার শাজাহানপুরে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে রাতের আঁধারে বিরোধপূর্ণ জমিতে থাকা গাছ কেটে জমি দখলের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে উভয়পক্ষের সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে কাদেরুজ্জামান নামে এক ব্যক্তিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় গতকাল রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সাহেব আলী নামে এক ব্যক্তি শাজাহানপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগকারী জানিয়েছেন, উপজেলার চোপীনগর ইউনিয়নের বৃ-কুষ্টিয়া মৌজায় পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া পাঁচ শতক জমিতে গাছ লাগিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ভোগদখল করে আসছিলেন। গত কয়েক মাস আগে তার চাচাতো ভাই মনিরুজ্জামান ওরফে মোকছেদ (৪৫), কাদেরুজ্জামান (৩৫) ও আব্দুল কাফী (৫০) ওই জমি নিজেদের দাবি করে বিবাদে জড়ান। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিকবার বৈঠকে বসলেও বিষয়টির সুরাহা হয়নি।

পরবর্তীতে গত জুন মাসে বগুড়ার অতিরিক্ত প্রথম জ্যেষ্ঠ জজ আদালতে মামলা (৩৯৭/২০২১ বণ্টন) দায়ের করা হয়। আগস্টে বিবাদীপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত নিষেধাজ্ঞা জারি করেন আদালত।

এ অবস্থায় গত শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাতে বিবাদীপক্ষের মনিরুজ্জামান ওরফে মোকছেদ, কাদেরুজ্জামান ও আব্দুল কাফী ওই জমিতে লাগানো ২৫টি বেলজিয়াম গাছ এবং ২০টি পেঁপে গাছ কেটে জমি দখলের চেষ্টা করে। গতকাল রোববার সকালে গাছ কাটার কারণ জানতে চাইলে উভয়পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে বিবাদীপক্ষ সাহেব আলী ও তার দুই ছেলে নাজিবুল ইসলাম নাজিব (৩০) ও শামীম হোসেনের (২৮) ওপর হামলা চালায়। আহত অন্যদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়া হলেও কাদেরুজ্জামানকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় গতকাল রোববার দুপুরে শাজাহানপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন সাহেব আলী।

অভিযোগের বিষয়ে মনিরুজ্জামান ওরফে মোকছেদের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে শাজাহানপুর থানার ওসি (তদন্ত) নান্নু খান জাগো নিউজকে জানিয়েছেন, অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তদন্তসাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এমকেআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]