ছাত্রলীগ নেতার হাতুড়িপেটায় সাবেক নেতার মৃত্যু

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মুন্সিগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৭:১৩ পিএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় পাওনা ৪০০ টাকার জেরে এক ছাত্রলীগ নেতার হাতুড়িপেটায় সাজিদুল ইসলাম মিম (২২) নামের সাবেক এক ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত মিম উপজেলার হোসেন্দী এলাকার ইসমানিরচর গ্রামের আব্দুস সাত্তার মিয়ার ছেলে ও হোসেন্দী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সম্পাদক।

গত ১৫ সেপ্টেম্বর দুপুরে উপজেলার হোসেন্দী এলাকায় হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে মিমকে আহত করেন ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সংগ্রাম মোল্লা (২৪) ও তার লোকজন।

মামলার এজাহার ও নিহতের স্বজনদের সূত্রে জানা যায়, গত ১০ সেপ্টেম্বর বনভোজনে যাওয়ার জন্য ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সংগ্রামের কাছ থেকে মিম ৪০০ টাকা ধার করে খরচ করেন। ১৫ সেপ্টেম্বর দুপুরে মিম স্থানীয় নাজিরচর থেকে বাড়িতে যাচ্ছিলেন। পথে পাওনা টাকার জের ধরে তাকে ধরে নিয়ে যান সংগ্রাম মোল্লা ও তার লোকজন। পরে মিমকে স্থানীয় অ্যাডভান্স প্রি-ক্যাডেট স্কুলের সামনে নিয়ে হাতুড়ি ও অন্যান্য দেশীয় অস্ত্র দিয়ে পিটিয়ে আহত করেন সংগ্রামসহ মো. আতাউর (২৭), সম্রাট (২২), তুষার (২০), সাব্বির (২২), নিঝুম (২২), অপু (২২), আরজু (২০), শুভসহ (২০) অজ্ঞাতপরিচয় আরও ১০-১২ জন। গুরুতর আহত অবস্থায় মিমকে প্রথমে গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আটদিনের মাথায় বৃহস্পতিবার তিনি মারা যান।

হোসেন্দী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মনিরুল হক মিঠু বলেন, সংগ্রাম, আতাউর ছেলেগুলো সন্ত্রাস। তারা এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব তৈরি করে চলেছে। বিভিন্ন সময় ইউনিয়ন পরিষদের সরকারি কাজেও ওরা বাধা দেয়। মিমকে হত্যার ঘটনায় আমরা সন্ত্রাসীদের বিচার চাই।

এ বিষয়ে গজারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রইছ উদ্দিন বলেন, এ ঘটনায় আগে একটি মামলা হয়েছিল। মামলাটি এখন হত্যা মামলায় রূপান্তর করা হবে। সে অনুযায়ী আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরাফাত রায়হান সাকিব/এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]