শিশু সন্তান কেড়ে নেওয়ায় স্ত্রীর ‘আত্মহত্যা’

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নেত্রকোনা
প্রকাশিত: ০৯:২৫ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১
প্রতীকী ছবি

জোরপূর্বক শিশু সন্তান কেড়ে নেওয়ায় স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে হালেমা আক্তার (২৩) নামে এক নারী আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে। শুক্রবার নেত্রকোনার কাইটাইল ইউনিয়নে জঙ্গলটেঙ্গা গ্রামে এ ঘটরা ঘটে।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ২ নম্বর চানগাওঁ ইউনিয়নে শাহাপুর গ্রামের রিকুলের ছেলে সঙ্গে পাঁচ বছর আগে কাইটাইল ইউনিয়নের জঙ্গলটেঙ্গা গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের মেয়ে হালেমা আক্তারের বিয়ে হয়। তাদের দুই বছরের তামীম নামে একটি পুত্র সন্তান রয়েছে।

স্বামী টিপু মিয়া সম্প্রতি গোপনে দ্বিতীয় বিয়ে করায় প্রথম স্ত্রী হালেমা বিষয়টি জেনে যায়। এ নিয়ে তাদের মধ্যে দীর্ঘদিন পারিবারিক কলহ লেগেই থাকত।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) দ্বিতীয় স্ত্রীর একটি বাচ্চা সন্তান হয়। এরপর মেয়েটি স্বামীর সঙ্গে পরের দিন ২৩ সেপ্টেম্বর ঝগড়া করে গ্রামের বাড়ি জঙ্গটেঙ্গা চলে আসেন। শুক্রবার স্বামী টিপু মিয়া প্রথম স্ত্রী হালেমার নিকট থেকে জোরপূর্বক তার পুত্র সন্তান তামীমকে কেড়ে নিয়ে আসেন। পরে অভিমান করে বাবার বাড়িতে নিজ ঘরের আড়ায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন বলে জানায় পুলিশ ও পরিবারের সদস্যরা।

সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান সাফায়েত উল্লাহ রয়েল জানান, বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। যদি এমন ঘটনা ঘটে থাকে তবে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য জোর সুপারিশ করছি।

মদন থানার ওসি ফেরদৌস আলম জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এইচ এম কামাল/জেডএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]