বিদেশে পাঠানোর লোভে হাতিয়ে নিতেন লাখ লাখ টাকা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী
প্রকাশিত: ০৮:৩০ এএম, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১

আন্তঃজেলা জাল ভিসা চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করেছে নোয়াখালী জেলা সিআইডি পুলিশ। শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) আদালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়।

গ্রেফতাররা হলেন-রাজশাহীর গোদাগাড়ীর কেশবপুর গ্রামের মো. মোহসেন আলীর ছেলে মোশারফ হোসেন (৩৮) ও নওগাঁর রাণীনগরের চকারপুকুর গ্রামের ওকিম সরকারের ছেলে মো. আজিজুল ইসলাম (৩৫)।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাতে ঢাকার কাফরুল থানা এলাকা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন সিআইডি নোয়াখালীর বিশেষ পুলিশ সুপার মো. বশির আহমেদ।

মামলার বিবরণী থেকে জানা যায়, সেলিম নামে এক ব্যক্তিসহ আরও চারজন আফ্রিকান দেশ সিসিলি প্রজাতন্ত্রে যাওয়ার জন্য ২০২১ সালের জানুয়ারি থেকে মে মাস পর্যন্ত আসামিদেরকে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ও অন্যান্য মাধ্যমে ১০ লাখ ১ হাজার টাকা দেন। টাকা পরিশোধ শেষে প্রতারক চক্র সেলিমকে চারটি ভিসা কপি দেয়। গত ১২ জুলাই ঢাকার সিসিলি প্রজাতন্ত্রের দূতাবাসে ভিসাগুলো জমা দেয়ার পর তারা জানতে পারেন সেগুলো জাল। এ ঘটনার পর মো. সেলিম প্রতারক মোশারফ ও আজিজুল ইসলামকে আসামি করে গত ১৮ আগস্ট বেগমগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেন।

পুলিশ সুপার জানান, বাদীর দেয়া তথ্য উপাত্ত বিশ্লেষণ, তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার ও গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডি নোয়াখালীর পুলিশ পরিদর্শক মো. গিয়াসউদ্দিনের নেতৃত্বে একটি টিম ঢাকার কাফরুল থানা এলাকা থেকে এ দুই প্রতারককে গ্রেফতার করে।

তিনি আরও জানান, আসামি মোশারফ হোসেন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। আসামিরা জানিয়েছেন, তারা একটি সংঘবদ্ধ চক্রের মাধ্যমে স্বল্প খরচে বিদেশ পাঠানোর লোভ দেখিয়ে লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করতেন। প্রতারক চক্রের অন্যদের শনাক্ত ও গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

ইকবাল হোসেন মজনু/এফআরএম/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]