নামাজ শেষে বসেছিলেন রেললাইনে, ট্রেন আসতেই ঝাঁপ দিলেন প্রবাসী

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ০৭:১৭ পিএম, ১৬ অক্টোবর ২০২১

টাঙ্গাইলের বাসাইলে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে শরিফুল ইসলাম (২৮) নামে এক সিঙ্গাপুর প্রবাসী আত্মহত্যা করেছেন। শনিবার (১৬ অক্টোবর) বিকেলে উপজেলার সোনালিয়া রেলক্রসিং এলাকায় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা রাজশাহীগামী বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দেন তিনি।

তবে তিনি কী কারণে আত্মহত্যা করেছেন সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি। শরিফুল ইসলাম সখীপুর উপজেলার দেওবাড়ি চাকলা পাড়া এলাকার আলাল উদ্দিনের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, আড়াই মাস আগে শরিফুলের সঙ্গে বাসাইল উপজেলার নাইকানী বাড়ি (মতির ভাটা) এলাকার আইয়ুব খানের মেয়ে আমেনা বেগমের (১৮) বিয়ে হয়। বিয়ের আগে শরিফুল দীর্ঘদিন সিঙ্গাপুরে ছিলেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় স্ত্রীসহ তিনি শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে আসেন। শনিবার সকালে বিশেষ কাজের কথা বলে তিনি বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান।

রেলওয়ে পুলিশের ঘারিন্দা ফাঁড়ির সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) নাঈমুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে আমার ঘটনাস্থলে পৌঁছাই। এসময় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শরিফুল ইসলাম পাশ্ববর্তী মসজিদে নামাজ পড়ে দীর্ঘ সময় রেললাইনে বসে ছিলেন। বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনটি দেখতে পেয়ে তিনি ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দেন। এসময় ট্রেনে কাটা পড়ে তার মৃত্যু হয়। আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহটি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

আরিফ উর রহমান টগর/ইউএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]