খেয়াঘাটে দুই বোনকে মারধর, শ্লীলতাহানির অভিযোগ

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি সাভার (ঢাকা)
প্রকাশিত: ০৯:৫৮ পিএম, ১৭ অক্টোবর ২০২১
প্রতীকী ছবি

ঢাকার সাভারে খেয়াঘাটে দুই বোনকে শ্লীলতাহানি ও মারধরের অভিযোগ উঠেছে মো. সেলিম নামের স্থানীয় এক প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে।

রোববার (১৭ অক্টোবর) বিকেলে সাভার মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ভুক্তভোগী দুই তরুণীর চাচা।

এর আগে শনিবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার কাউন্দিয়া খেয়াঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগীদের একজন মিরপুরে একটি কলেজের অনার্স ও অপরজন উচ্চ মাধ্যমিকের শিক্ষার্থী।

অন্যদিকে অভিযুক্ত মো. সেলিম সাভার উপজেলার কাউন্দিয়া ইউনিয়নের বাকসাত্রা গ্রামের মৃত মহব্বত আলী বেপারীর ছেলে।

লিখিত অভিযোগে বলা হয়, শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে রাজধানীর মিরপুর থেকে কেনাকাটা শেষে বাসায় ফিরছিলেন দুই বোন। রাত সোয়া ৯টার দিকে কাউন্দিয়া খেয়াঘাটে পৌঁছান তারা। এসময় মো. সেলিম নামের এক ব্যক্তি বড় বোনের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিয়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেন। এসময় দুই বোন প্রতিবাদ করলে তাদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে নৌকায় থাকা ছাতা দিয়ে পিটিয়ে আহত করেন।

তাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে সেলিম ও তার ভাগিনা চলে যান। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়।

এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত সেলিমের ব্যক্তিগত নম্বরে কল দেওয়া হলে সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে তিনি ফোন কেটে দেন।

ভুক্তভোগী ওই তরুণী জানান, ওই ব্যক্তি আমাকে জড়িয়ে ধরেছিলেন। প্রতিবাদ করায় আমাদের দুই বোনকে মারধর করেন। আমরা এর বিচার চাই।

সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মাইনুল ইসলাম বলেন, রাতে এমন একটি অভিযোগ আসলেও সামাজিকভাবে মীমাংসা হবে বলে চলে যান।

আরএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]