সেই রিক্তা হাসপাতাল থেকে নিখোঁজ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফরিদপুর
প্রকাশিত: ০৭:৪১ পিএম, ২০ অক্টোবর ২০২১

ফরিদপুরের ভাঙ্গার মানসিক ভারসাম্যহীন রিক্তা রানী মালো হাসপাতাল থেকে নিখোঁজ হয়েছেন। গত পাঁচদিনেও তার সন্ধান মেলেনি।

স্থানীয় প্রশাসন গত ৯ অক্টোবর প্রাথমিকভাবে চিকিৎসার জন্য তাকে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। এরপর এক সপ্তাহ হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলে। শনিবার (১৬ অক্টোবর) সকাল ১০টার দিকে হঠাৎ তিনি নিখোঁজ হন।

এর আগে জাগোনিউজ২৪.কম-এ ‘মানসিক ভারসাম্যহীন রিক্তাকে দেখার কেউ নেই’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। বিষয়টি নজরে এলে ভাঙ্গা উপজেলা প্রশাসন রিক্তার খোঁজখবর নেয় এবং তার দায়িত্ব নেওয়ার ঘোষণা দেয়।

jagonews24

রিক্তার মামা দুলাল চন্দ্র মালো জাগো নিউজকে বলেন, রিক্তাকে নিয়ে সংবাদ প্রকাশের পর স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সে অনুযায়ী এক সপ্তাহ ধরে চিকিৎসা চলে। আমি নিজে তার সঙ্গে হাসপাতালে ছিলাম। গত ৯ অক্টোবর সকাল সাড়ে ৯টার দিকে রিক্তাকে হাসপাতালের বিছানায় রেখে আমি সকালের খাবার খেতে যাই। আধাঘণ্টা পর ফিরে এসে দেখি রিক্তা হাসপাতালের বিছানায় নেই। তাৎক্ষণিকভাবে হাসপাতালসহ শহরের বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেছি। তবে কোথাও তার সন্ধান পাইনি। বিষয়টি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ও ইউএনওকে জানানো হয়েছে

এ বিষয়ে ভাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ((ইউএনও) মো. আজিম উদ্দিন বলেন, তাকে খোঁজ করার সব ধরনের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। তবে তার নিকটাত্মীয়-স্বজনদের খোঁজ করার বিষয়ে তেমন একটা তৎপরতা নেই। তা নাহলে এতদিনে তো থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করতে পারতেন। তিনি আশা করেন খুব শিগগিরই তার খোঁজ পাওয়া যাবে।

ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. সাইফুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, মানসিক ভারসাম্যহীন এমন একজন ভর্তি হয়েছিলেন এটুকু জানি। কিন্তু তার নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি আমার জানা নেই।

এন কে বি নয়ন/এসআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]