ফরিদপুরে যুবদল নেতা সম্রাট গ্রেফতার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফরিদপুর
প্রকাশিত: ০৪:৫০ এএম, ২৭ অক্টোবর ২০২১

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে এক ভাইয়ের সমর্থককে অন্য ভাইয়ের সমর্থকের হুমকি দেওয়ার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। এছাড়া হুমকিদাতা উপজেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক রবিউল ইসলাম সম্রাটকে (৪৩) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার (২৫ অক্টোবর) পৌর সদরের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সামনে অবস্থিত উপজেলা বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয় থেকে তাকে গ্রেফতারের পর মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরে তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার গুনবহা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. সিরাজুল ইসলাম এবং তার আপন ছোট ভাই মো. আবুল বাশার বিপ্লব এবার ওই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী।

প্রার্থী হিসেবে দুই ভাইয়ের গণসংযোগকে কেন্দ্র করে উভয়ের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার রাত ৮টার দিকে বর্তমান চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলামের সমর্থক সম্রাট ফোনে আবুল বাশার বিপ্লবের সমর্থক জাকারিয়াকে হুমকি-ধামকি দেন। এছাড়াও সম্রাট রাত ৯টার দিকে বিপ্লবের অপর সমর্থক মো. ফারুক হোসেনকে জামে মসজিদের সামনে অবস্থিত বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ের সামনে মারধর করতে উদ্যত হন।

এ বিষয়ে সোমবার রাতে বোয়ালমারী থানার এএসআই আশরাফুল ইসলাম জানান, ১৫১ ধারায় রবিউল ইসলাম সম্রাটকে আসামি করে বোয়ালমারী থানায় মামলা হয়েছে। এরপর তাকে গ্রেফতার করে মঙ্গলবার দুপুরে ফরিদপুর আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. আবুল বাশার বিপ্লব জাগো নিউজকে বলেন, সম্রাট আমার সমর্থক জাকারিয়াকে হুমকি-ধামকি দেন। আরেক সমর্থক মো. ফারুক হোসেনকে মারধর করতে উদ্যত হয়ন। এ ঘটনায় জাকারিয়া ও ফারুক হোসেন স্থানীয় থানা পুলিশকে জানান। তাদের অভিযোগের ভিত্তিতে থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ সম্রাটকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।

বোয়ালমারী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নুরুল আলম বলেন, হুমকির অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত হয়ে সোমবার রাতেই মামলা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত সম্রাটকে ফরিদপুর আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এন কে বি নয়ন/ইএ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]