ব্যালট ছিনতাইকারীরা জান নিয়ে পালাতে পারবে না: নোয়াখালীর এসপি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী
প্রকাশিত: ১২:১৩ এএম, ২৮ নভেম্বর ২০২১

কেন্দ্রদখল বা ব্যালট ছিনতাইকারীরা জান (জীবন) নিয়ে পালাতে পারবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন নোয়াখালীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম।

রোববার (২৮ নভেম্বর) জেলার সেনবাগ পৌরসভা ও পাঁচ ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ করা হবে। এরআগে শনিবার (২৭ নভেম্বর) ভোটের দায়িত্বে থাকা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা বলেন।

এসপি শহীদুল ইসলাম বলেন, কেউ ভোটকেন্দ্রে ঢুকে ব্যালট বাক্স ছিনতাই করার সাহস যেন না দেখায়। কেন্দ্রের বাইরে এসবি, ডিবি, এনএসআই ও ডিজিএফআই দায়িত্ব পালন করবে। ব্যালট বাক্স ছিনতাইকারী জীবন নিয়ে ভোটকেন্দ্র থেকে যেন পালাতে না পারে।

পুলিশ সুপার আরও বলেন, আমরা বেগমগঞ্জের মতো সেনবাগ উপজেলা তথা নোয়াখালীবাসীকে একটা মডেল নির্বাচন উপহার দিতে চাই। এখানে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোট উৎসব হবে। মানুষ উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিয়ে বাড়ি ফিরবে।

তিনি বলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় ৫৯টি নির্বাচনী কেন্দ্রে ২৯৮ জন পুলিশ, ১৯টি মোবাইল টিম, সাতটি স্ট্রাইকিং ফোর্স, সাতটি স্পেশাল স্ট্রাইকিং ফোর্স, জেলা গোয়েন্দা শাখার চারটি টিম, পাঁচটি চেকপোস্ট এবং চারটি স্ট্যান্ড বাই টিম, ওসিদের একটি টিম এবং সিনিয়র অফিসারদের পাঁচটি টিমে মোট ৬৫৬ জন পুলিশ মোতায়েন থাকবে।

‘এছাড়া ৯২৯ জন আনসার, র‍্যাবের ৩৭ জন এবং বিজিবির ৮৩ জন সদস্য একযোগে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় দায়িত্ব পালন করবে। কোথাও কোনো কেন্দ্রে এতটুকু ছাড় দেওয়া হবে না। অযাচিত কোনো লোক যেন কেন্দ্রে অবস্থান করতে না পারে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে’ যোগ করেন এসপি।

তৃতীয় ধাপে রোববার (২৮ নভেম্বর) সেনবাগ পৌরসভার নয়টি কেন্দ্রে এবং ৫টি ইউনিয়নের মোট ৫০টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এরমধ্যে সেনবাগ পৌরসভার নয়টি ও ছাতারপাইয়া ইউনিয়নের নয়টিসহ মোট ১৮টি কেন্দ্রে ইভিএমে ভোটগ্রহণ করা হবে।

ইকবাল হোসেন মজনু/এএএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]