নাতির কোলে চড়ে ভোটকেন্দ্রে ৯০ বছরের বৃদ্ধা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি চাঁদপুর
প্রকাশিত: ০৪:১০ পিএম, ২৮ নভেম্বর ২০২১

নাতির কোলে চড়ে ভোট দিতে কেন্দ্রে এসেছেন ৯০ বছরের আব্দুল বারেক। জীবনের শেষ মুহূর্তে ভোট দিতে পেরে খুশি তিনি।

রোববার (২৮ নভেম্বর) সকালে নাতি আবদুল মমিনের কোলে চড়ে চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ষাটনল বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে উপস্থিত হন তিনি।

তিনি উপজেলার ষাটনল ইউনিয়নের রঙ্গুখাকান্দি গ্রামের বাসিন্দা। তিনি ওই ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের ভোটার।

ভোট প্রয়োগ শেষে আব্দুল বারেক বলেন, ভোট দিতে পেরে আনন্দ লাগছে। বাড়ি থেকে রিকশায় চড়ে ভোটকেন্দ্রে আসি। পরে নিজের নাতি আমাকে কোলে নিয়ে স্কুলের দোতলায় নিয়ে যায়। সেখানে তার সহযোগিতায় ভোট দেই।

তিনি বলেন, ভোট দিতে কোনো সমস্যা হয়নি। পরিবেশ ভালো আছে। আমার পছন্দের প্রার্থীরাই জয়লাভ করবেন আশা করি।

নাতি আবদুল মমিন বলেন, ভোট দিতে ইচ্ছে পোষণ করায় দাদাকে কেন্দ্রে নিয়ে আসি। বয়স বেশি হওয়ায় হাঁটাচলা করতে পারেন না। তাই আমি দাদাকে কোলে করে ভোট দিতে নিয়ে এসেছি। তাকে সহায়তা করতে পেরে আমি অনেক আনন্দিত।

ষাটনল বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার মো. আরিফুল্লাহ বলেন, সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। কোথাও কোনো ধরনের সমস্যা নেই।

তিনি জানান, ওই কেন্দ্রে ভোটার এক হাজার ৪০৫ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৬৮৪ ও নারী ভোটার রয়েছে ৭২১।

উল্লেখ্য, চাঁদপুরের মতলব উত্তর ও দক্ষিণ উপজেলার ১৭ ইউনিয়নের ভোটগ্রহণ চলছে। নির্বাচনী পরিবেশ স্বাভাবিক থাকার জন্য মাঠে রয়েছে আনসার, পুলিশ ও র‌্যাব বিজিবির সদস্যরা। চাঁদপুরের ১৭ ইউনিয়নের পাঁচটিতে নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হয়েছেন। বাকি ১২ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মোট ৩৪ প্রার্থী এ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

নজরুল ইসলাম আতিক/আরএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]