নৌকা চান একই পরিবারের তিনজন, ভাগ্যে জোটেনি কারো

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি মির্জাপুর (টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ০৫:১৯ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১

নৌকা প্রতীক চেয়েও পাননি টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার মহেড়া ইউনিয়নের একই পরিবারের তিনজন।

নৌকা প্রতীক বঞ্চিতরা হলেন- মহেড়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো. বাদশা মিয়া, তার স্ত্রী নারী নেত্রী রাজিয়া বেগম এবং উপজেলা যুবলীগ নেতা মো. আওলাদ হোসেন।

শনিবার (৪ নভেম্বর) আওয়ামী লীগের সংসদীয় ও স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ড জাতীয় পার্টির সাবেক নেতা বিভাস সরকার নুপুরকে নৌকা প্রতীক দেওয়া হয়।

স্থানীয় ও দলীয় সূত্র জানায়, নৌকা প্রতীক পেতে দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে আসছেন বর্তমান চেয়ারম্যান মো. বাদশা মিয়াসহ তার পরিবারের সদস্যরা। কিন্তু শনিবার দলীয় মনোনয়ন বোর্ড উপজেলার আট ইউনিয়নের নৌকার প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেন। সেখানে জাতীয় পার্টির সাবেক নেতা বিভাস সরকার নুপুরকে নৌকা প্রতীক দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো. বাদশা মিয়া বলেন, যাকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে তিনি আওয়ামী লীগ করেন না। গত নির্বাচনে তিনি আমার কাছে দুই হাজার ৮০ ভোটে পরাজিত হয়েছেন। এবার দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে আমি জমা দিয়েছিলেন। কিন্তু উপজেলা ও জেলা থেকে আমার নাম পাঠানো হয়নি। তিনি স্বতন্ত্রপ্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে জানান।

মির্জাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মীর এনায়েত হোসেন মন্টু বলেন, বাদশা মিয়া গত নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী ছিল। এ কারণে তার নাম কেন্দ্রে পাঠানো হয়নি। বাদশার স্ত্রী ও ছোট ভাইয়ের নাম পাঠানো হয়েছিল। তারা বাদশার স্ত্রী ও ভাই হওয়ায় দলীয় মনোনয়ন পাননি।

এসএমএরশাদ/আরএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]