পটুয়াখালী মুক্ত দিবসে নৌকাবাইচ দেখতে ভিড়

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পটুয়াখালী
প্রকাশিত: ০৬:৫১ পিএম, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১

মুজিববর্ষ, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং পটুয়াখালী মুক্ত দিবস উপলক্ষে লাউকাঠি নদীতে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হলো বিজয় নৌকাবাইচ।

বুধবার (৮ ডিসেম্বর) জেলা প্রশাসন আয়োজিত নৌকাবাইচ দেখতে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে হাজারও নারী-পুরুষ ও শিশুরা উপস্থিত হন নদীর দুপাড়ে। পরে জেলা প্রশাসক লঞ্চঘাটে অংশ নেওয়া দলগুলোর মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন।

১৯৭১ সালের ৮ ডিসেম্বর হানাদারমুক্ত হয় পটুয়াখালী জেলা। সেদিন লাউকাঠি নদী থেকে লঞ্চযোগে পটুয়াখালী ত্যাগ করেন পাক হানাদার বাহিনী। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং জেলামুক্ত দিবসে সেই লাউকাঠি নদীতে এ নৌকাবাইচের আয়োজন করা হয়। দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত ছয়টি দল বাইচে অংশ নেয়।

পটুয়াখালী মুক্ত দিবসে নৌকাবাইচ দেখতে ভিড়

পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী আলমগীর হোসেন বলেন, এবারই মুক্ত দিবসে এমন আয়োজন নতুন প্রজন্মের কাছে এক নতুন বার্তা পৌঁছে গেলো। জেলা প্রশাসনকে আমরা ধন্যবাদ জানাই৷

পটুয়াখালী পৌর মেয়র মো. মহিউদ্দিন আহম্মেদ বলেন, সব ভালো কাজে পৌরসভা জেলা প্রশাসনকে সহযোগিতা করে আসছে। আগামীতেও এ আয়োজনের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার আহ্বান জানাচ্ছি।

পটুয়াখালী মুক্ত দিবসে নৌকাবাইচ দেখতে ভিড়

আগামী দিনগুলোতেও এ ধারাবাহিকতা বজায় রাখার কথা জানান জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন।

এদিকে জেলা মুক্ত দিবস উপলক্ষে নৌকাবাইচের পাশাপাশি শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় আলোকসজ্জা করা হয়।

নৌকাবাইচে অংশ নেওয়া ছয়টি দলের মধ্যে মাগুরা টাইগার দল প্রথম, আতিকের তরি দ্বিতীয় এবং মা সিতলা তৃতীয় স্থান অধিকার করে। বিজয়ী দলকে মোটরসাইকেল, ৪৩ ইঞ্চি টেলিভিশন এবং ফ্রিজ উপহার দেওয়া হয়।

আব্দুস সালাম আরিফ/এসজে/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]