তাড়াশে পরাজিত মেম্বার প্রার্থীর ভাইকে কোপানোর অভিযোগ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সিরাজগঞ্জ
প্রকাশিত: ১২:৩২ এএম, ১২ জানুয়ারি ২০২২
হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনা হয় এফ কবির চৌধুরীকে

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে এক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় জেমস বাহিনীর বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) সন্ধ্যার দিকে উপজেলার ধামইচ হাট মসজিদে এ ঘটনা ঘটে।

আহত ব্যক্তির নাম এফ কবির চৌধুরী। তিনি ৩ নম্বর সগুনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি। এছাড়া সদ্য শেষ হওয়া ইউপি নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী নজরুল ইসলাম চৌধুরীর ছোট ভাই।

এই নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী জুলফিকার আলী ভুট্টুর কাছে পরাজিত হন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী।

স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার মাগরিবের নামাজের ওজু করার সময় এফ কবির চৌধুরীর ওপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা করে জেমস বাহিনী। এতে তার মাথায় পাঁচটি ও পায়ে চারটি সেলাই দেওয়া হয়। হামলার পর এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

নৌকার প্রার্থী নজরুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, নির্বাচিত প্রার্থীর সমর্থক জেমস বাহিনীর সদস্যরা আমার ছোট ভাইকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করেছে। এই বাহিনীর অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ।

তিনি আরও বলেন, জেমস বাহিনীর প্রধান মোনায়েম হোসেন জেমস, সদস্য রোকন ফারুকী, শাওন, ফয়সাল আহম্মেদ রানা, আহম্মেদ ইমতিয়াজ, মমিন প্রামানিক, মিরন, তোফাজ্জল, রান্টুসহ আরও বেশ কয়েকজন আমার ভাইয়ের ওপরে হামলা চালায়। এ ঘটনায় তাড়াশ থানায় মামলা করবেন বলে জানান তিনি।

এদিকে জেমস বাহিনীর প্রধান মোনায়েম হোসেন জেমস এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, নির্বাচনে আমি বিদ্রোহী প্রার্থীর কাজ করায় আমাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যার বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. শামীমুল ইসলাম জানান, গুরুতর আহত অবস্থায় এফ কবির চৌধুরীকে রাত ৯টার দিকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তার মাথা ও পায়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

তাড়াশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফজলে আশিক বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। এ ঘটনায় কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেমস বাহিনীর বিষয়ে তিনি বলেন, জেমস নামে এক ব্যক্তিকে আমি চিনি। সেটা তদন্ত করে দেখা হবে।

জেডএইচ/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]