কক্সবাজার পৌরসভায় ওয়াকিটকি, আসছে ৪০০ কোটি টাকা অনুদান

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কক্সবাজার
প্রকাশিত: ০১:৪৮ এএম, ১৫ জানুয়ারি ২০২২

কক্সবাজার পৌরসভার উন্নয়নে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় উন্নয়ন সহযোগী জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সির (জাইকা) ৪০০ কোটি টাকার অনুদান একনেকে অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. হেলালুদ্দীন আহমদ।

নাগরিক সেবাসহ প্রকৌশল, কঞ্জারভেন্সি ও অন্যান্য সেবার মান বাড়াতে শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুরে ভার্চুয়াল মিটিংয়ে কক্সবাজার পৌরসভায় ওয়াকিটকি সার্ভিসের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বক্তৃতায় তিনি এ কথা জানান।

হেলালুদ্দীন বলেন, কক্সবাজারকে আন্তর্জাতিক পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে বঙ্গবন্ধকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কক্সবাজারকে পর্যটন হ্যাব হিসেবে ঘোষণা করেছেন। ইতোমধ্যে কক্সবাজারের মাতারবাড়ীতে চারটি মেগা প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন। এছাড়াও কক্সবাজার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, আনোয়ারা হয়ে কক্সবাজার মেরিন ড্রাইভের অংশে এলজিইডির মাধ্যমে বাঁকখালী নদীতেব্রিজ নির্মাণের কাজ দ্রুত এগোচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, তিনটি সিটি করপোরেশনের সাথে কক্সবাজার পৌরসভার উন্নয়নে জাইকার ৪০০ কোটি টাকার অনুদান একনেকে অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে। এরই ধারাবাহিকতায় পৌরসভার মধ্যে সর্বপ্রথম পর্যটকসহ পৌরবাসীর সেবার মান বাড়াতে কক্সবাজার পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য ওয়াকিটকি সার্ভিস উদ্বোধন করা হলো।

কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে ওয়াকিটকি সার্ভিস উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ, এলজিএসপি প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক শেখ মোজাক্কা জাহের।

কক্সবাজার পৌরসভার নির্বাহী কর্মকর্তা এ.কে.এম তারিকুল আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে কক্সবাজার পৌরসভার প্যানেল মেয়র-২ হেলাল উদ্দিন কবির, প্যানেল মেয়র-৩ শাহেনা আক্তার পাখি, কাউন্সিলর রাজবিহারী দাশ, এসআইএম আক্তার কামাল, মিজানুর রহমান, ওমর ছিদ্দিক লালু, আশরাফুল হুদা ছিদ্দিকী জামশেদ, নুর মোহাম্মদ মাঝু, এম.এ মনজুর, জাহেদা আক্তার, নাছিমা আক্তার বকুল, নির্বাহী প্রকৌশলী মো. নুরুল আলম প্রমুখসহ কর্মকর্তা-কর্মজীবীা উপস্থিত ছিলেন।

সায়ীদ আলমগীর/এমকেআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]