টাঙ্গাইল-৭ উপনির্বাচনে জামানত হারালেন তিন প্রার্থী

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি মির্জাপুর (টাঙ্গাইল)
প্রকাশিত: ০১:৩২ পিএম, ১৭ জানুয়ারি ২০২২

টাঙ্গাইল-৭ মির্জাপুর আসনের উপনির্বাচনে অংশ নেওয়া তিন প্রার্থী জামানত হারিয়েছেন। কাস্টিং ভোটের সাড়ে ১২ শতাংশ ভোট কম পাওয়ায় তারা জামানত হারিয়েছেন বলে জানা গেছে।

জামানত হারানো প্রার্থীরা হলেন, জাতীয় পার্টির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান (স্বতন্ত্র) নুরুল ইসলাম নুরু (মোটরগাড়ি) ২৪৩৬ ভোট, বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির মনোনীত প্রার্থী গোলাম নওজব চৌধুরী পাওয়ার (হাতুড়ি) ১০৪৫ ভোট ও বাংলাদেশ কংগ্রেস পার্টির মনোনীত প্রার্থী রুপা রায় চৌধুরী। রুপা ডাব প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে ৪৩৮ ভোট পেয়েছেন।

এই উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী খান আহমেদ শুভ (নৌকা) ১ লাখ ৪ হাজার ৫৯ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টির প্রার্থী জহিরুল ইসলাম জহির ১৬ হাজার ৭৭৩ ভোট পেয়েছেন।

শুভ মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, বীর মুক্তিযোদ্ধা, একুশে পদকপ্রাপ্ত, টাঙ্গাইল জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুর রহমান খান ফারুকের ছেলে। ফজলুর রহমান খান ফারুক ১৯৭০ সালের প্রাদেশিক পরিষদের সর্ব কনিষ্ঠ সদস্য ও ১৯৭৩ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। দীর্ঘদিন পর আবার বাবার আসনে এমপি হলেন ছেলে শুভ।

এস এম এরশাদ/এফএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]