খাগড়াছড়িতে তিন নারী ফুটবলারকে সংবর্ধনা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি খাগড়াছড়ি
প্রকাশিত: ০২:২৪ পিএম, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশের হয়ে খেলা খাগড়াছড়ির তিন কৃতি ফুটবলার আনাই-আনুচিং-মনিকা ও নারী ফুটবল দলের সহকারী কোচ তৃষ্ণা চাকমাকে ছাদখোলা জিপ ও মোটর শোভাযাত্রায় বরণ করে নিয়েছেন পার্বত্য খাগড়াছড়িবাসী।

শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টার দিকে রাঙ্গামাটি থেকে সড়ক পথে খাগড়াছড়ির ঠাকুরছড়া পৌঁছালে নারী সংসদ সদস্য বাসন্তী চাকমা ও খাগড়াছড়ি জেলা ক্রীড়া সংস্থার নেতারা তাদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেন। এসময় বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ সাফজয়ীদের ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত করে।

খাগড়াছড়ির ঠাকুরছড়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ফুল দিয়ে বরণ করার পর তাদের সুসজ্জিত একটি ছাদখোলা জিপে করে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রাসহ খাগড়াছড়ির গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করানো হয়। পরে খাগড়াছড়ি স্টেডিয়ামে নেওয়া হয় তাদের।

jagonews24

সেখানে খাগড়াছড়ির অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. আবু সাঈদের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য বাসন্তী চাকমা।

এসময় খাগড়াছড়ির পুলিশ সুপার মো. নাইমুল হক, খাগড়াছড়ি জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জুয়েল চাকমা, খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শানে আলম, খাগড়াছড়ি জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি মো. নুরুল আযম, পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য শতরূপা চাকমা ও জেলা মহিলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ফারজানা আযম, বাংলাদেশ ফুটবল দলের সহকারী কোচ তৃষ্ণা চাকমা ও কৃতি ফুটবলার মনিকা চাকমা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

সংসদ সদস্য বাসন্তী চাকমা বলেন, জয়ের স্রোতে তোমরা গা ভাসিয়ে দিও না। বিভিন্ন জনপদে ছড়িয়ে থাকে ক্ষুদে ফুটবলারদের তুলে আনতে হবে। তৃষ্ণার মতো একদিন কোচের দায়িত্ব নিতে হবে। ছেলেমেয়ে বৈষম্য না করে সবাইকে সমান সুযোগ দিতে হবে। সুযোগ পেয়েছে বলেই দুর্গম জনপদে বেড়ে ওঠা আনাই-আনুচিং-মনিকারা খাগড়াছড়ির মুখ উজ্জ্বল করেছে।

খাগড়াছড়ি জেলা ক্রীড়া সংস্থার পক্ষ থেকে তাদের সম্মাননা ক্রেস্ট, টি-শার্ট এবং প্রত্যেকের হাতে একলাখ টাকার চেক প্রদান করা হয়।

মুজিবুর রহমান ভুইয়া/এমএইচআর/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।