নারায়ণগঞ্জে জল কামান নিয়ে প্রস্তুত পুলিশ, মোড়ে মোড়ে চেকপোস্ট

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৪:৩৭ পিএম, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২

অডিও শুনুন

নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে চেকপোস্ট বসিয়ে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) সকাল থেকে শহরের চাষাঢ়া মোড়সহ বিভিন্ন সড়কে চেকপোস্ট বসিয়ে তল্লাশি চালানো হয়। এছাড়া জল কামান প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

যদিও পুলিশ বলছে এটা তাদের নিয়মিত দায়িত্ব। তারই অংশ হিসেবে এ তল্লাশি। তবে বিএনপির নেতাকর্মীদের দাবি, সমাবেশকে কেন্দ্র করে এ তল্লাশি ও তৎপরতা বৃদ্ধি করছে পুলিশ। যাতে বিএনপির কোনো নেতাকর্মী বাসা থেকে বের হতে না পারেন।

jagonews24

সরেজমিনে দেখা যায়, শহরের চাষাঢ়া এলাকায় যারাই আসছেন প্রায় সবাইকে তল্লাশি করা হচ্ছে। বিভিন্ন যানবাহনের যাত্রীদেরও নামিয়ে সময় নিয়ে শরীরজুড়ে তল্লাশি করছেন পুলিশ সদস্যরা। সঙ্গে থাকা মোবাইলও চেক করছেন তারা। যাদের গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হচ্ছে অথবা যাদের মোবাইলে বিএনপি কিংবা সরকারিবিরোধী কোনো বিষয় পাওয়া যাচ্ছে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এতে অনেকেই হয়রানিরও শিকার হচ্ছেন।

নাজমুল হোসেন নামে এক যুবক বলেন, আমি একটি কারখানায় চাকরি করি। কোনো রাজনীতি বুঝি না। সবসময় চাকরি নিয়ে ব্যস্ত থাকতে হয়। সকালে চাষাঢ়া আসতে পুলিশ আমাকে তল্লাশির নামে দীর্ঘক্ষণ দাঁড় করিয়ে রাখে। অথচ আমার কাছে কিছুই ছিল না।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান বলেন, সরকার কোনো কর্মসূচির কথা শুনলেই ভয় পায়। আগামী ১০ ডিসেম্বরের সমাবেশকে কেন্দ্র করে বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে গায়েবি মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। সরকার পুলিশ প্রশাসনকে ব্যবহার করছে বিএনপির বিরুদ্ধে। তবে তারা যতই বাধা দিক আমাদের নেতাকর্মীদের আটকে রাখতে পারবে না।

জেলা বিএনপির সদস্য মাশুকুল ইসলাম রাজীব বলেন, আমরা যারা বিএনপি করি তারা বাসাবাড়িতে থাকতে পারি না। আমাদের নেতাকর্মীদের গায়েবি মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। পরিবার-পরিজন ছেড়ে দিন যাপন করতে হচ্ছে আমাদের। এখন রাস্তাঘাটেও তল্লাশি করছে।

jagonews24

তবে চেকপোস্টে দায়িত্বে থাকা পুলিশের এসআই রুবেল জাগো নিউজকে বলেন, এটা আমাদের নিয়মিত ডিউটি। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের রাখার স্বার্থে প্রতিদিনই আমরা এ তল্লাশি চালিয়ে থাকি। এটা নতুন কোনো বিষয় না।

এ বিষয়ে পুলিশ সুপার (এসপি) গোলাম মোস্তফা রাসেল জাগো নিউজকে বলেন, চেকপোস্ট বসানো আজতো নতুন না। আমরা মাঝেমধ্যেই চেকপোস্ট বসিয়ে থাকি। এরমধ্যে কেউ যদি নাশকতা করার পরিকল্পনা করে তাহলেতো তারা পুলিশের তল্লাশিকে ভয় পাবেই। এটা আমাদের রুটিন ওয়ার্ক।

মোবাশ্বির শ্রাবণ/আরএইচ/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।