২০১৮ সালে ব্যাংক বন্ধ ২৪ দিন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৫৬ পিএম, ২৭ নভেম্বর ২০১৭
২০১৮ সালে ব্যাংক বন্ধ ২৪ দিন

২০১৮ সালে ব্যাংকের ছুটির তালিকা প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপনের আলোকে আগামী বছর ২৪ দিন বন্ধ থাকবে সব তফসিলি ব্যাংক।

সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বাজার বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। নির্দেশনাটি চিঠি আকারে সব তফসিলি ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক প্রকাশিত ছুটির তালিকা অনুযায়ী, সাধারণ ও নির্বাহী ছুটি মিলিয়ে ২০১৮ সালে ২৪ দিন ব্যাংক বন্ধ থাকবে। এর মধ্যে ৭ দিনই পড়েছে শুক্র ও শনিবার। জাতীয় দিবস ও বিভিন্ন সম্প্রদায়ের গুরুত্বপূর্ণ ধর্মীয় দিবসে ১৭ দিন সাধারণ ছুটি থাকবে।

বাংলাদেশে ব্যাংকের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, আগামী বছরের ২১ ফেব্রুয়ারি শহীদ দিবস, ১৭ মার্চ জাতির পিতার জন্মদিন, ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস, ২৯ এপ্রিল বৌদ্ধ পুর্ণিমা, ১ মে- মে দিবস, ১৫ জুন জুমাতুল বিদা, ১৬ জুন ঈদুল ফিতর, ১ জুলাই ব্যাংক হলিডে, ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস, ২২ আগস্ট ঈদুল আজহা, ২ সেপ্টেম্বর জন্মাষ্টমী, ১৯ অক্টোবর দুর্গাপূজা, ২১ নভেম্বরে ঈদে মিলাদুন্নবী, ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস এবং ২৫ ডিসেম্বর যিশু খ্রিস্টের জন্মদিন (বড়দিন) উপলক্ষে দেশের সব ব্যাংক বন্ধ থাকবে।

এছাড়া ১৪ এপ্রিল বাংলা নববর্ষ, ২ মে শবেবরাত, ১২ জুন শবে কদর, ১৫ ও ১৭ জুন ঈদুল ফিতরের আগে ও পরের দিন, ২১ ও ২৩ আগস্ট ঈদুল আজহার আগে ও পরের দিন এবং ২১ সেপ্টেম্বর আশুরার দিন নির্বাহী আদেশে ব্যাংক বন্ধ থাকবে। ১ জুলাই ও ৩১ ডিসেম্বর ব্যাংক হলিডে তে ব্যাংক বন্ধ থাকবে।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ৬ নভেম্বর ২০১৮ সালের সরকারি ছুটির তালিকা অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এতে সভাপতিত্ব করেন। আগামী বছর সাধারণ ও নির্বাহী আদেশে ছুটি মিলিয়ে সরকারি অফিসে ২২দিন ছুটি থাকবে। এর মধ্যে ৭ দিন পড়েছে শুক্র ও শনিবার।

সরকারি অফিসে জাতীয় দিবস ও বিভিন্ন সম্প্রদায়ের গুরুত্বপূর্ণ ধর্মীয় দিবসে ১৪ দিন সাধারণ ছুটি থাকবে। সাধারণ ছুটির মধ্যে ৪ দিন সাপ্তাহিক ছুটির দিন (শুক্র ও শনিবার) পড়েছে। এ ছাড়া বাংলা নববর্ষ ও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ধর্মীয় দিবসে ৮ দিন নির্বাহী আদেশে ছুটি থাকবে। এ ছুটির মধ্যে তিনটি সপ্তাহিক ছুটির দিন পড়ে গেছে।

এসআই/জেডএ/আরআইপি