প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তনে জটিলতা কাটছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:২৭ পিএম, ১৬ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৭:২৮ পিএম, ১৬ জুন ২০২১

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তনের জটিলতা দূরীকরণের উদ্যোগ নিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। এ বিষয়ে একটি নীতিমালা তৈরি করা হবে। সেটি অনূসরণ করে বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করতে হবে বলে জানা গেছে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে, সারাদেশে পুরাতন ও জাতীয়করণ হওয়া ৬৫ হাজারের বেশি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। তার মধ্যে কিছু বিদ্যালয়ের নাম অস্বস্তিকর হওয়ায় নানা ধরনের জটিলতা তৈরি হয়। আবার অনেক বিদ্যালয়ের নাম উচ্চারণ করায় বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়তে হচ্ছে। বর্তমানে এসব নাম পরিবর্তন করলে শিক্ষকদের বেতন বন্ধ হয়ে যাচ্ছে।

জানা গেছে, এ পর্যন্ত ১০-১২টির মতো এ ধরনের বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন হওয়ায় সেসব প্রতিষ্ঠানে কর্মকত শিক্ষকদের বেতন দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ হয়ে যায়। নানাভাবে তদবির করে দুই-তিনটির এ সমস্যা সমাধান করা হলেও অন্যদের বেতন বন্ধ রয়েছে। আইবাস সফটওয়্যারের মাধ্যমে শিক্ষকদের বেতন পরিশোধ করায় বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন হলে এ জটিলতা সৃষ্টি হচ্ছে। এজন্য নাম পরিবর্তন সংক্রান্ত একটি নীতিমালা তৈরির নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

জানতে চাইলে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (বিদ্যালয়) রতন চন্দ্র পন্ডিত বলেন, ‘বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন সংক্রান্ত একটি নীতিমালা তৈরি করা হবে। এ নীতিমালা অনুসরণ করে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘বিষয়টি চূড়ান্ত করতে বুধবার (১৬ জুন) মন্ত্রণালয়ে একটি সভা হয়েছে। সভায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ডিজিকে প্রধান করে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটি নীতিমালার একটি খসড়া তৈরি করে মন্ত্রণালয়ে দেবে। এরপর সেটি যাচাই-বাছাই করে চূড়ান্ত করে তা কার্যকর করা হবে।’

এমএইচএম/ইএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]