সোশ্যাল মিডিয়ায় সাম্প্রদায়িক উসকানি, কঙ্গনাকে থানায় তলব

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৩৩ এএম, ২২ অক্টোবর ২০২০

বলিউড কুইন কঙ্গনা রানাওয়াত ও তার বোন রঙ্গোলি চান্ডেলের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে সাম্প্রদায়িক বিভাজন তৈরির চেষ্টার অভিযোগ রয়েছে অনেক আগে থেকেই। এজন্য তাদের বিরুদ্ধে মামলা করার নির্দেশ দেন আদালত। এবার সেই মামলার সূত্র ধরেই কঙ্গনা ও রঙ্গোলিকে তলব করেছে মুম্বাই পুলিশ।

আগামী ২৬ ও ২৭ অক্টোবর অভিনেত্রী ও তার বোনকে বান্দ্রা পুলিশ স্টেশনে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এইসময়।

এর আগে অভিনেত্রী ও তার বোনের বিরুদ্ধে মামলার নির্দেশ দিয়ে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট জয়দেব বলেছিলেন, ‘এ-সংক্রান্ত অভিযোগ ও সংশ্লিষ্ট নথিপত্র প্রাথমিকভাবে খতিয়ে দেখে আমার ধারণা, অভিযুক্তরা অপরাধ করেছেন। তারা এ কাজে টুইটারের মতো সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করেছেন। এজন্য বিশেষজ্ঞদের সুগভীর তদন্ত প্রয়োজন। এছাড়া তল্লাশি চালানো ও প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র বাজেয়াপ্ত করাও জরুরি।’

কঙ্গনার কোন কোন টুইটকে উসকানিমূলক বলে মনে হয়েছে তা-ও নির্দিষ্ট করে উল্লেখ করেন এই বিচারক। তার মধ্যে মুম্বাইয়ের সঙ্গে পাক-অধিকৃত কাশ্মীরের তুলনা টেনে কঙ্গনার বিতর্কিত টুইটটির কথাও উল্লেখ করা হয়।

এফআইআর দায়েরের পরও মোটেও হেলদোল নেই অভিনেত্রীর। আদালতের এফআইআর দায়েরের নির্দেশের পরও তির্যক মন্তব্য করে কঙ্গনা টুইটারে লিখেছিলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে আর একটা এফআইআর দায়ের হয়েছে। মনে হয়, পাপ্পু সেনা আমাকে নিয়েই ভাবছে। এত মিস করবেন না আমাকে। দ্রুত ফিরে আসছি ওখানে।’

সম্প্রতি মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্রের প্রতিবাদে প্যারিসে এক শিক্ষকের শিরশ্ছেদের ঘটনায় টুইট করেন কঙ্গনা। এটিও তার বিপদ বাড়িয়েছে।

পুলিশের তলবের পরেও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি ঠোঁটকাটা এই অভিনেত্রী। তিনি এক টুইটে লিখেছেন, ‘হতাশ পেঙ্গুইন সেনা। মহারাষ্ট্রের পাপ্পুরা কঙ্গনাকে খুব মনে পড়ছে তাই না? কোনো ব্যাপার না, আমি শিগগিরই আসছি।’

বর্তমানে ভাইয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে মজে রয়েছেন বলিউড কুইন।

এসআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]