ধানুশের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর ভাইরাল ঐশ্বরিয়ার পোস্ট

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:০৭ পিএম, ১৮ জানুয়ারি ২০২২

দক্ষিণী সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা ধানুশ। শুধু দক্ষিণ নয়, তার ভক্ত রয়েছে বিশ্বের নানা প্রান্তে। বলিউড পেরিয়ে হলিউডেও কাজ করছেন তিনি। প্রিয় অভিনেতার যে কোনো কিছুই নাড়া দেয় ভক্তদের মনে।

সামান্তা রথ প্রভু ও নাগা চৈতন্যের বিবাহ বিচ্ছেদের রেশ কাটতে না কাটতেই ১৮ বছরের বিবাহিত জীবনের ইতি টেনেছেন ধানুশ ও তার পত্নী ঐশ্বরিয়া রজনীকান্ত। এই বিচ্ছেদের খবরটি বেশ শোরগোল তৈরি করেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

১৭ জানুয়ারি অভিনেতা ধানুশ এবং ঐশ্বরিয়া তাদের বিচ্ছেদের খবরটি সোস্যাল মিডিয়ায় নিশ্চিত করেন। একটি বিবৃতিতে তারা বিবাহবিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে বলেন, ‘এখন থেকে আলাদাভাবে আমাদের জীবনযাত্রা শুরু হবে।’

ঠিক সেই সময়টাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে ঐশ্বরিয়ার একটি পুরনো পোস্ট। যেখানে তিনি নিজেকে গর্বিত কন্যা এবং গর্বিত স্ত্রী হওয়ার কথা দাবি করেছিলেন। পোস্টটি মূলত ২০২১ সালের অক্টোবরে শেয়ার করা হয়েছিল। যখন তার বাবা রজনীকান্ত এবং ধানুশ মর্যাদাপূর্ণ জাতীয় পুরস্কার অনুষ্ঠানের জন্য একসঙ্গে নয়া দিল্লিতে গিয়েছিলেন।

রজনীকান্ত দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কারে সম্মানিত হন এবং ধানুশ শ্রেষ্ঠ অভিনেতা বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জেতেন। এই জুটিকে অভিনন্দন জানিয়ে ঐশ্বরিয়া ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট শেয়ার করেছিলেন। যার ক্যাপশন দিয়েছিলেন, ‘তারা আমার এবং এটি ইতিহাস। একজন গর্বিত কন্যা ও গর্বিত স্ত্রী।’

সেই পোস্টটি নতুন করে ভাইরাল হয়েছে। ধানুশের ভক্তরা চাইছেন সংসার যেন টিকিয়ে রাখেন তারা। রজনীকান্তের মেয়ের সঙ্গেই ধানুশকে দেখতে চান সবাই।

এলএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]