মাদক মামলায় নির্দোষ আরিয়ান, ফেঁসে যাচ্ছেন সমীর

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৫২ পিএম, ২৭ মে ২০২২

মাদককাণ্ডে শাহরুখপুত্র আরিয়ান খানের বিরুদ্ধে কোনো প্রমাণ দিতে পারেনি ভারতের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো (এনসিবি)। চার্জশিট জমা দেওয়ার পরই নড়েচড়ে বসেছে দেশটির সরকার। এবার আরিয়ানকে গ্রেফতার করা এনসিবির সাবেক কর্মকর্তা সমীর ওয়াংখেড়ের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার (২৭ মে) এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা।

গত বছরের ২ অক্টোবরে মুম্বাইয়ের উপকূলে প্রমোদতরী কর্ডেলিয়ায় এনসিবি অভিযানের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন সমীর। সেখান থেকেই মাদক সেবন ও সরবরাহের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছিল আরিয়ান ও তার বন্ধুদের। প্রায় এক মাস জেলে কাটিয়ে জামিনে ছাড়া পান শাহরুখপুত্র। তারপরেও নিয়মিত এনসিবি দপ্তরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হাজিরা দিয়েছেন তিনি। এরপর শুক্রবার আরিয়ানকে বেকসুর খালাস দিয়েছে ভারতের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো (এনসিবি)।

এনসিবি কর্মকর্তা সঞ্জয় কুমার সিং বলেছেন, যাদের আসামি করা হয়েছে, তাদের সবার কাছে মাদক পাওয়া গেছে। কিন্তু আরিয়ানের কাছে কোনো মাদক ছিল না।

ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, আরিয়ানকে বেকসুর খালাস দেওয়ার পরই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফ থেকে নির্দেশ দেওয়া হয় অর্থ মন্ত্রণালয়কে। শাহরুখপুত্রের বিরুদ্ধে অসত্য অভিযোগে তদন্ত চালানোর দায়ে সমীরের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

প্রাথমিকভাবে এই মাদককাণ্ডে জিজ্ঞাসাবাদসহ তদন্তের ভার ছিল এনসিবি মুম্বাই শাখার ওপরে। তার নেতৃত্বে ছিলেন সমীরই। পরে ওই তদন্ত নিয়ে নানা প্রশ্ন উঠতে থাকায় তদন্তভার চলে যায় ভারতের নিযুক্ত বিশেষ তদন্তকারী দল (সিট) এর কাছে। ভুয়া তদন্ত, তদন্তে প্রভাব খাটানোসহ একাধিক অভিযোগে পদ থেকে সরতে হয়েছিল সমীরকে। এবার আরিয়ানকে চার্জশিটে নির্দোষ ঘোষণার পরে শাস্তির মুখে এসে দাঁড়ালেন সাবেক এই এনসিবি কর্মকর্তা।

আরএডি/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]