আমরা সফল জুটি ছিলাম, কোনো কেলেঙ্করী ছিল না : কবরী

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৩৪ পিএম, ২৩ জানুয়ারি ২০১৮

আজ মঙ্গলবার নায়করাজ রাজ্জাকের জন্মদিন। এ উপলক্ষে আজ দুপুরে বিএফডিসির মান্না ডিজিটাল কমপ্লেক্সের ফলজুল হক অডিটোরিয়ামে পরিচালক সমিতির আয়োজনে নায়করাজের জন্মদিন পালন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন হাসান ইমাম, আলমগীর, আবদুল লতিফ বাচ্চু, আজিজুর রহমান, গাজী মাজহারুল আনোয়ার, ছটকু আহমেদ, মুশফিকুর রহমান গুলজার, বদিউল আলম খোকন প্রমুখ।

অনেকের মধ্যে ছিলেন নায়করাজের সফল জুটির নায়িকা কবরী সারোয়ার। তিনি তার ‘রংবাজ’ হিরোর স্মৃতিচারণে তুলে আনলেন ফেলে আসা অতীতের অনেক কথাই। তবে নিজেদের ইন্ডাস্ট্রির সফল জুটি দাবি করার পাশাপাশি সচ্ছ, সুন্দর সম্পর্কের জুটি বলেও অভিহিত করেন।

তিনি বলেন, ‘আমাদের মধ্যে কেমিস্ট্রিটা ছিল অনেক ভালো, একজন আরেকজনকে ভালো বুঝতাম। যে কারণে পর্দায় আমাদের দেখে দর্শক পছন্দ করতেন। আবার ভালো কাজ করা নিয়ে আমাদের মধ্যে প্রতিযোগিতা। নায়করাজকে হিংসা করতাম আমি। এই হিংসা ছিল তাকে ভালো অভিনয় দিয়ে ছাড়িয়ে যাবার। তিনি সেটা উপভোগ করতেন। আমরা একে অপরকে ছাড়িয়ে যেতে চাইতাম। এই প্রবণতাটা আমরা দুজনই পছন্দ করতাম। আমরা নিজেদের ভালো অভিনয়শিল্পী বানানোর চেষ্টা করেছি। রাজ্জাক সাহেব আমাকে অনেক কিছু শিখিয়েছেন।’

নায়করাজকে নিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘দেখতে গম্ভীর মনে হলেও নায়করাজ ছিলেন সুন্দর মনের মানুষ। তিনি বেশ মিশুকও। আমার সঙ্গে খুনসুটিতে লেগেই থাকতেন। তবে নায়করাজ আমাকে ভয়ও পেতেন। কারণ, আমি সব সময় মুখের ওপর কথা বলতাম। কিছু পছন্দ না হলেই প্রতিবাদ করতাম। আবার আমরা দুজন মিলে অনেক বেশি দুষ্টুমিও করেছি। যেমন একটি নতুন হিরো এলে তাকে তার গেটআপ, লুক নিয়ে আমরা মজা করতাম। তখন তারা কনফিউজড হয়ে যেত। আবার কিছুক্ষণ পর তারা বুঝতে পারত যে আমরা দুষ্টুমি করছি।’

কবরী নতুন জুটিদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আমরা একসময় দাপটের সঙ্গে জুটি বেঁধে কাজ করেছি। কিন্তু আমাদের নামে কোনো কেলেঙ্কারি নেই। কেলেঙ্কারি ছাড়াই আমরা সফল জুটি হয়েছি। এটা হয়েছে কাজের প্রতি ভালোবাসা থেকে। আমি মনে করি, কাজকে সম্মান করা উচিত, তবেই সাফল্য আসা সম্ভব। আমি নতুনদের বলব, কাউকে সরিয়ে দিয়ে নয়, নিজের যোগ্যতা দিয়ে কাজ করলে অবশ্যই কাজের স্বীকৃতি আসবেই।’

আজ সকাল ৯টায় নায়করাজ রাজ্জাকের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক ও শিল্পী সমিতি। সকাল থেকে কোরআন খতম করা হয়। বাদ আসর মিলাদের আয়োজন করা হয়।

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে গত বছরের ২১ আগস্ট সন্ধ্যায় রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে মারা যান নায়করাজ রাজ্জাক। রাজধানীর বনানী কবরস্থানে নায়করাজকে সমাহিত করা হয়।

এলএ/এমএস

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :