টিভি চ্যানেলে বকেয়া টাকা আদায়ে মাঠে নামছেন প্রযোজকরা

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:১৯ পিএম, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

দেশের বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে বিভিন্ন প্রযোজকদের কোটি টাকারও বেশি বকেয়া জমেছে বলে দাবি টেলিভিশন প্রোগ্রাম প্রডিউসার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ’র। তালিকায় আছে স্বনামধন্য অনেক টিভি চ্যানেল।

চ্যানেলগুলোতে গেল কয়েক বছর ধরে ধারাবাহিক ও খণ্ড নাটক এবং টেলিফিল্ম প্রচার হয়েছে। অনেকে নানা রকম অনুষ্ঠানও আয়োজনও করে চালিয়েছেন নানা চ্যানেলে। কিন্তু সেইসবের জন্য অনেক টাকা ফেরত পাননি সংশ্লিষ্ট প্রযোজকরা। অনেকদিন ধরেই বিষয়টি আলোচিত শোবিজে। অনেক নির্মাতা ও প্রযোজকদের সঙ্গে নানারকম তিক্ত ঘটনারও জন্ম দিয়েছে বেশ কিছু টিভি চ্যানেল। দফায় দফায় চিঠি চালাচালি ও মিটিং করেও কোনো সুরাহা পাননি অনেক প্রযোজক। অনেকেই বাধ্য হয়ে বন্ধ করে দিয়েছেন অনেক ধারাবাহিক নাটক ও অনুষ্ঠানের প্রচার।

চ্যানেলগুলোতে প্রযোজকদের বকেয়া দিন দিন বাড়ছেই। তবে টনক নড়েনি এর নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে টিভি নাটক ও অনুষ্ঠান নির্মাণে। প্রযোজকরা অর্থ লগ্নির আগ্রহ হারিয়েছেন। ফলে নির্মাতাদের মধ্যে হতাশা তৈরি হয়েছে। বাড়ছে শিল্পীদের বেকারত্ব।

প্রযোজকদের ভাষ্য, কোনো কারণে টিভি চ্যানেলগুলো প্রযোজকদের বকেয়া টাকা পরিশোধ করতে চাইছে না। তারা এখন ওইসব প্রযোজকদের এড়িয়ে নতুন প্রযোজকদের দিয়ে নাটক বানাচ্ছেন।

এমন সংকটময় মুহূর্তে সরব হয়েছে প্রযোজকদের সংগঠন টেলিভিশন প্রোগ্রাম প্রডিউসার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টেলিপ্যাব)। সংগঠনের সভাপতি মামুনুর রশীদ ও সাধারণ সম্পাদক ইরশে যাকেরের নেতৃত্বে প্রযোজকগণ টিভি চ্যানেলগুলোতে জমে থাকা বকেয়া আদায়ের দাবিতে মাঠে নামছেন। আসছে কর্মসূচিও।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর বকেয়া আদায়ের দাবিতে একটি সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। টেলিপ্যাবের নেতা ইরেশ যাকের স্বাক্ষরিত এক বিবৃতির মাধ্যমে এই তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে, আগামীকাল টিভি চ্যানেলগুলোর বিরুদ্ধে শক্তিশালী কোনো কর্মসূচি ঘোষণা করবে টেলিভিশন প্রোগ্রাম প্রডিউসার এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ।

প্রসঙ্গত, এর আগেও টেলিভিশন প্রোগ্রাম প্রডিউসার এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ বিদেশি ধারাবাহিক নাটক দেশীয় টিভি চ্যানেলে প্রচার না করার জন্য আন্দোলনে নেমেছিলো। সেসময় তাদের সঙ্গে ছিলো অভিনয় শিল্পী সংঘ, ডিরেক্টর’স গিল্ডসহ টিভি সংশ্লিষ্ট নানা সংগঠন। সমন্বিত এই আন্দোলনে জোট বেঁধে রাজপথে নেমেছিলেন তারকা অভিনেতা-নির্মাতারাও। কিন্তু এখনো বন্ধ হয়নি বিদেশি ধারাবাহিকের প্রচার। বরং উল্লেখ করা যেতে পারে, তুলনামূলক যেন একটু বেড়েইছে। প্রায় সব টিভি চ্যানেলেই প্রচার হচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সিরিয়াল।

এলএ/এমএস

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :