বন্ধ হচ্ছে না হল, মুক্তি পাবে হিন্দি সিনেমা

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৪৩ পিএম, ০২ এপ্রিল ২০১৯

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতি আগামী ১২ এপ্রিল থেকে দেশের সব সিনেমা হল বন্ধের ঘোষণা দিয়েছিল। তাদের দাবি, দেশীয় সিনেমা নির্মাণ বাড়াতে হবে এবং বলিউডের ছবি আমদানির প্রক্রিয়া সহজ করতে হবে।

এই দাবি না মানা হলে আন্দোলন চলবে। ১২ এপ্রিল থেকে বন্ধ থাকবে দেশের সব সিনেমা হল। এই ঘোষণার পরিপ্রেক্ষিতে পক্ষে-বিপক্ষে অনেক জল ঘোলা হয়েছে চলচ্চিত্রপাড়ায়। ছিল পহেলা বৈশাখ ও ঈদে ছবি মুক্তি নিয়ে অনেক শংকাও।

তবে সব শংকাই কেটে গেল। হল বন্ধ রাখার আন্দোলন থেকে সরে এসেছে চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতি। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সভাপতি ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ।

তিনি জানান, আজ ২ এপ্রিল, মঙ্গলবার দুপুর ৩টায় তথ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসেন চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির নেতারা। সেই বৈঠকে চলচ্চিত্র নিয়ে ইতিবাচক অনেক আলোচনা হয়। সেখানে মন্ত্রীর কাছ থেকে হিন্দি ছবি আমদানি করার ব্যবস্থা করা হবে এমন আশ্বাস পেয়ে হল মালিক নেতারা সিদ্ধান্ত পাল্টান।

চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সভাপতি ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ বলেন, ‘তথ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আমরা কথা বলেছি। মন্ত্রী হল মালিকদের সব সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন। সীমিত পরিসরে হিন্দি সিনেমাও আমদানির আশ্বাস দিয়েছেন। তাই আমরাও হল বন্ধ রাখার ঘোষণা ফিরিয়ে নিলাম।’

তিনি আরও বলেন, এই বিষয়ে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট অন্যান্য সংগঠনের সঙ্গেও বৈঠকে বসবেন তথ্যমন্ত্রী। চলচ্চিত্রের যেভাবে ভালো হয় সেভাবেই সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

এদিকে হল চালু রাখার ঘোষণায় চলচ্চিত্র পরিবেশক সমিতিসহ মুক্তির অপেক্ষায় থাকা সিনেমার সংশ্লিষ্টরা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করছেন।

তবে মন্ত্রীর আশ্বাসে হিন্দি ছবি আমদানির বিষয়টি চলচ্চিত্রের মানুষেরা কীভাবে গ্রহণ করবেন সেটাই এখন দেখার বিষয়। কারণ এর আগেও হল মালিকরা বলিউডের ছবি মুক্তির জন্য বহুবার আন্দোলন করেছেন। প্রতিবারই সেই আন্দোলনের প্রতিবাদ করেছে চলচ্চিত্রের শিল্পী-পরিচালক সমিতিসহ অনেক সংগঠন।

এলএ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]