এবারেও হচ্ছে না বেঙ্গল উচ্চাঙ্গ সংগীত উৎসব

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:২০ পিএম, ২২ অক্টোবর ২০১৯

সেই ২০১৩ সাল থেকে টানা ছয়বার অনুষ্ঠিত হয়েছে বেঙ্গল ফাউন্ডেশন আয়োজিত উচ্চাঙ্গ সংগীত উৎসব। দেশি-বিদেশি শিল্পীদের বাদ্যযন্ত্র আর ধ্রুপদী সুরের মূর্ছনায় সিক্ত হয়েছেন দেশের সংগীত পিপাসুরা। প্রতি বছরই হাজার হাজার মানুষ হাজির হয়েছেন উচ্চাঙ্গ সংগীতের মিলনমেলায়। সন্ধ্যা থেকে ভোর পর্যন্ত তারা সুরের অমিয় ধারায় স্নান করেছেন।

২০১৪ সালে সারাদেশে আগুন সন্ত্রাসের সময়ও নির্বিঘ্নে এ উৎসব চলেছে। এমনকি ২০১৬ সালে হোলি আর্টিজানের মতো ভয়াবহ ঘটনার পরেও বিদেশি শিল্পীরা বাংলাদেশে এসেছিলেন গান শোনাতে। আর দেশের মানুষও এসেছিলেন বাঁধ ভাঙা জোয়ারের মতো।

২০১৭ সালে ক্যাথলিক ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস বাংলাদেশে আসা উপলক্ষে নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে আর্মি স্টেডিয়াম বরাদ্দ না দেওয়ায় অনিশ্চয়তার মুখে পড়েছিল উৎসব আয়োজন। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগ্রহে ধানমন্ডির আবাহনী মাঠে উত্সব আয়োজন করা হয়। আর্মি স্টেডিয়ামের পরিবর্তে ধানমন্ডির আবাহনী মাঠে ২৬ থেকে ৩০ ডিসেম্বর বসেছিল উচ্চাঙ্গ সংগীত উত্সব ২০১৭।

দারুণ জনপ্রিয় হয়ে উঠা এই আয়োজনটি হঠাৎ করে গত বছর থেকে বন্ধ হয়ে যায়। সবার প্রত্যাশা ছিলো সব জটিলতা কাটিয়ে এবারে ঠিকই বসবে উচ্চাঙ্গ সংগীতের মিলনমেলা। কিন্তু আজ মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর নিশ্চিত হওয়া গেল এবারেও ক্লাসিক গানের আন্তর্জাতিক এই উৎসব থেকে বঞ্চিত হবেন শ্রোতারা।

কারণ ভেন্যু জটিলতা। নিরাপত্তাজনিত সমস্যায় আর্মি স্টেডিয়ামে অনুমতি পাওয়া যায়নি। বিকল্প ভেন্যু হিসেবে প্রস্তুত নয় আবাহানী মাঠও। সেখানে মাঠ উন্নয়নের কাজ চলছে। তাই এবারে উৎসব হবে না জানিয়ে বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক লুভা নাহিদ চৌধুরী বলেন, ‘নভেম্বরে উৎসব করার পরিকল্পনা ছিলো। চেষ্টা করছিলাম এবারে পুরনো ভেন্যুতেই ফিরে যাওয়া যায় কী না। কিন্তু সম্ভব হয়নি। আমাদের উৎসব তো রাতব্যাপী চলে। সারারাত নিরাপত্তা নিয়ে জটিলতা থাকায় অনুমতি পাওয়া যায়নি।’

তিনি জানান, আর্মি স্টেডিয়াম বরাদ্দ না পেয়ে আবাহনী মাঠকেই বেছে নেয়া হয়েছিলো। কিন্তু সেখানে কাজ চলছে। তাই চলতি বছরে এই উৎসব করা থেকে সরে এসেছে বেঙ্গল।

এলএ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]