সুরের পাখি বুলবুলের জন্মদিন আজ

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:১৭ এএম, ০১ জানুয়ারি ২০২০

তিনি নেই, আছে তার সুরের ভূবন। বীর মুক্তিযোদ্ধা ও একুশে পদকপ্রাপ্ত সংগীতজ্ঞ আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল চলতি বছরের ২২ জানুয়ারি পৃথিবীর মায়া কাটিয়ে চলে গেছেন। রেখে গেছে অজস্র জনপ্রিয় গান। আজ এই গুণী মানুষটির জন্মদিন। গতবছর জন্মদিনেও তিনি বেঁচে ছিলেন, এই বছর নেই। তবুও আজ তার জন্মদিন।

সবাই যখন ২০২০ সালের নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানাতে ব্যস্ত তখন কেউ কেউ স্মরণ করেছেন প্রিয় এই মানুষটিকে। ফেসবুকে অনেকেই আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলকে শ্রদ্ধা জানিয়ে স্মরণ করছেন।

আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের জন্মদিন উপলক্ষে তাকে স্মরণ করে গান একটি গান গেয়েছেন ক্লোজআপ ওয়ান তারকা রাজীব। আজ দুপুরে জি সিরিজ প্রকাশ করবে গানটি। এমনটাই জানালেন গানটির সুরকার মুরাদ নূর। রাজীব এই গানটি নিয়ে বলেন, ‘বুলবুল স্যার বাংলা গানের প্রাণপুরুষ। তার অসাধারণ মৌলিক সৃষ্টিতে বাংলা গান বিশ্বে বেশ সমৃদ্ধ। গানটি করেছি মুরাদ নূরের উদ্যোগে’।

বাংলাদেশের খ্যাতমানা গীতিকার, সুরকার ও সঙ্গীত পরিচালক আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল ১৯৫৬ সালের ১ জানুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন। ২০১৯ সালের ২২ জানুয়ারি ৬৩ বছর বয়সে তার মৃত্যু হয়।

মাত্র ১৫ বছর বয়সে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল। সঙ্গীতে অনন্য অবদানের জন্য বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় সর্বোচ্চ সম্মাননা একুশে পদক, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, রাষ্ট্রপতি পুরস্কার-সহ অসংখ্য পুরস্কার পেয়েছেন।

সত্তরের দশকের শেষদিকে ‘মেঘ বিজলি বাদল’ ছবিতে সঙ্গীত পরিচালনার মধ্য দিয়ে সিনেমায় কাজ শুরু করেন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল। তিনশোরও বেশি সিনেমায় সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন। দু’বার বাংলাদেশের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন।

প্রথমটি ‘প্রেমের তাজমহল’ এবং দ্বিতীয়টি ‘হাজার বছর ধরে’ ছবির জন্য। ‘সব কটা জানালা খুলে দাও না’, ‘ও মাঝি নাও ছাইড়া দে, ও মাঝি পাল উড়াইয়া দে’, ‘সুন্দর সুবর্ণ তারুণ্য লাবণ্য’ গানগুলো বাংলাদেশ ইতিহাসের অংশ হয়ে আছে। যতদিন বাংলা গান থাকবে তত দিনই গানের সুরে বেঁচে থাকবেন সুরের পাখি বুলবুল।

এমএবি/এমআরএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]