মিশা সওদাগরের অভিনয় ছেড়ে দেওয়ার গুজব

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:১৩ পিএম, ০৫ জানুয়ারি ২০২০

ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় খলনায়ক মিশা সওদাগর। আট শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করে খ্যাতি ও জনপ্রিয়তা পেয়েছেন তিনি। গতকাল ৪ ডিসেম্বর ছিল তার জন্মদিন। ভক্তরা নানা মাধ্যমেই শুভেচ্ছায় ভাসিয়েছেন তাকে। এদিকে সোশ্যাল মিডিয়াতে ছড়িয়েছে মিশা সওদাগরের অভিনয় ছেড়ে দেওয়ার গুজব।

খবর ছড়িয়েছে, হাতে থাকা কাজগুলো শেষ করেই অভিনয় ছেড়ে দিবেন মিশা। বর্তমানে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন মিশা। সিনেমার কাজও করে যাচ্ছেন নিয়মিত। এমন সময় হঠাৎ করে তার অভিনয় ছেড়ে দেওয়ার কথা শুনে অবাক হয়েছেন তার ভক্তরা।

মিশার অভিনয় ছাড়ার খবর এই প্রথম নয়। বছর তিনেক আগেও গণমাধ্যমের কাছে মিশা নিজেই জানিয়েছিলেন, আর অভিনয় করবেন না তিনি। সেই সময় এই অভিনেতা বলেছিলেন, ‘একান্তই ব্যক্তিগত কারণে অভিনয় ছাড়ছি, মূলত পরিবারকে একটু সময় দিতে চাচ্ছি। অনেকে তো শেষ সময়ে অবসরে যায়, আমি না হয় পিক আওয়ার থাকতে থাকতে বিদায় জানিয়ে অভিনয় ছেড়ে দেই।’

না ভালোবাসার এই অঙ্গন ছেড়ে বিদায় নিতে পারেননি তিনি। এরপরও অনেক সিনেমার অভিনয় করেছেন। চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি হয়েছেন। আবারও হঠাৎ করে বেজেছে সেই বিদায়ের সুর।

এই বিষয়ে মিশা সওদাগরের এক ঘনিষ্ঠজন জানান, মিশা অভিনয় ছাড়ছেন না। এটা গুজব ছাড়া আর কিছুই নয়। মিশা আছেন, থাকবেন আর নিয়মিত অভিনয় করে যাবেন। মিশা বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে তার স্ত্রী পুত্রের সঙ্গে আছেন। সেখানেই জন্মদিন কাটিয়েছেন তিনি।

১৯৮৬ সাল থেকে মিশা সওদাগর চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করেন। এফডিসি আয়োজিত নতুন মুখ কার্যক্রমে নির্বাচিত হন তিনি। ছটকু আহমেদ পরিচালিত ‘চেতনা’ ছবিতে নায়ক হিসেবে অভিনয় করেন ১৯৯০ সালে। এরপর ‘অমরসঙ্গী’ ছবিতেও তিনি নায়কের ভূমিকায় অভিনয় করেন। পরবর্তীতে তমিজ উদ্দিন রিজভীর ‘আশা ভালোবাসা’ ছবিতে ভিলেন চরিত্রে অভিনয় শুরু করেন। সেখান থেকেই তার সাফল্য শুরু। এখনো মন খুলে সেই পথেই হেঁটে চলেছেন তিনি।

এমএবি/এলএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]