শ্যাম বেনেগালের সিনেমায় বেগম মুজিবের চরিত্রে নাবিলা!

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:১৬ পিএম, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০

বাংলাদেশ ও ভারত সরকার যৌথ প্রযোজনায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীনির্ভর সিনেমা নির্মাণ করতে চলছে। এই বায়োপিক তৈরির জন্য পরিচালক হিসেবে বায়োপিক মাস্টার খ্যাত নির্মাতা মুম্বাইয়ের শ্যাম বেনেগালকে বেছে নেয়া হয়েছে।

এরই মধ্যে মাঠে নেমেছেন এই পরিচালক। এখন চলছে বিভিন্ন চরিত্রে শিল্পী বাছাই। এখন পর্যন্ত নিশ্চিতভাবে জানা গেছে, বঙ্গবন্ধুর মা শেখ সায়েরা খাতুনের চরিত্রে অভিনয় করছেন দিলারা জামান এবং হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী চরিত্রে থাকছেন অভিনেতা তৌকির আহমেদ।

এছাড়া ফজলুর রহমান বাবুর নাম শোনা যাচ্ছে খন্দকার মোশতাকের চরিত্রে অভিনয় করবেন বলে।

এদিকে আজ শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) জানা গেছে, শ্যাম বেনেগালের সিনেমা বঙ্গবন্ধুর স্ত্রী ফজিলাতুন্নেছা মুজিব চরিত্রে অভিনয় করতে যাচ্ছেন ‘আয়নাবাজি’খ্যাত অভিনেত্রী মাসুমা রহমান নাবিলা। গতকাল শুক্রবার তিনি এফডিসিতে এ চরিত্রে অডিশন দিয়েছেন।

বিশ্বস্ত সূত্রে পাওয়া খবরটি যাচাই করতে নাবিলার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি এখনো নিশ্চিত নই কোন চরিত্রে সুযোগ পাচ্ছি বা আদৌ পাবো কী না। কেবল অডিশন দিয়েছি বঙ্গবন্ধুর স্ত্রী বেগম মুজিবের চরিত্রে। হতে পারে অন্য কোনো চরিত্রও আসতে পারে। এটা নিতান্তই ছবিটির পরিচালক ও তার টিমের ওপর নির্ভর করছে।’

জানা গেছে, শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের কিশোরী বয়সের চরিত্রে অভিনয় করবেন নাবিলা। তার চরিত্রটি হাজির হবে ‘রেনু’ নাম নিয়ে। কারণ বেগম মুজিবকে ভালোবেসে এ নামেই ডাকতেন বঙ্গবন্ধু।

চাচাতো ভাই শেখ মুজিবের সাথে শেখ ফজিলাতুন্নেছার যখন বিয়ে হয় তখন তার বয়স মাত্র তিন। ওই সময় শেখ মুজিব পড়ালেখা করার জন্য বাবার সাথে গোপালগঞ্জে থাকতেন। রেনু থাকতেন গ্রামের বাড়ি টুঙ্গিপাড়ায় শাশুড়ির তত্ত্বাবধানে।

স্বামীর সান্নিধ্য থেকে বঞ্চিত হওয়র সূচনা সেই শিশু বয়স থেকেই। তবে সে ব্যাপারে তার আফসোস বা অভিযোগ কিংবা অতৃপ্তি ছিল না। বরং সেই শিশু বয়স থেকেই তিনি নিজেকে প্রস্তুত করেছিলেন দেশ-মাতৃকার সেবায় স্বামী ও স্বামীর ভালোবাসাকে উৎসর্গ করবেন বলে। বলা চলে অনেকটা নিজের জীবনটাকেই উৎসর্গ করে দেয়া। তাই বাংলাদেশের স্বাধীনতা বা মুক্তিসংগ্রামের অবিচ্ছেদ্য এক অংশ বেগম মুজিব। বঙ্গবন্ধুর জীবনীতে এ মহীয়সীর ভূমিকা উঠে আসবে শ্যাম বেনেগালের নির্মাণের মুন্সিয়ানায়।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ১৭ মার্চ শততম জন্মবর্ষে পদার্পণ করবেন বঙ্গবন্ধু। শুরু হবে মুজিববর্ষ। সেদিন থেকে শুরু হবে এই সিনেমার শুটিং। এই মুজিববর্ষেই অর্থাৎ ২০২১ সালের ১৭ মার্চের আগেই শেষ হবে বায়োপিকের নির্মাণকাজ। বাংলাদেশ ও ভারতে মুক্তি দেয়া হবে ৪০ কোটি বাজেটে নির্মিত ২ ঘণ্টা ২০ মিনিট ব্যাপ্তির এ সিনেমা।

এলএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]