৫ সিনেমার ঘোষণা দিয়ে ফিরলেন অনন্য মামুন

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:১৩ পিএম, ১৬ জানুয়ারি ২০২১

তরুণ প্রজন্মের জনপ্রিয় নির্মাতা অনন্য মামুন। গেল কয়েক বছর ধরেই তিনি পরিচ্ছন্ন নির্মাণে দর্শকদের উপহার দিয়েছেন বিগ বাজেটের বেশ কিছু সিনেমা। সেইসব সিনেমা ব্যবসায়িক সাফল্যের পাশাপাশি প্রশংসিত হয়েছে বিভিন্ন মহলেও।

তার মধ্যে ২০১৬ সালে মামুন পরিচালিত ‘অস্তিত্ব’ সিনেমায় অভিনয়ের জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান নুসরাত ইমরোজ তিশা এবং ২০১৯ সালে সেরা অভিনেতা বিভাগে তারিক আনম খান জাতীয় পুরস্কার পাচ্ছেন এ পরিচালকেরই ‘আবার বসন্ত’ সিনেমার জন্য।

তবে সম্প্রতি ‘নবাব এলএলবি’ নামের সিনেমার জন্য বেশ বিপাকে পড়তে হয়েছে তাকে। ছবিতে পুলিশকে নিয়ে অশালীন সংলাপের অভিযোগে গত ২৪ ডিসেম্বর গ্রেফতার হন অনন্য মামুন ও ছবির অভিনেতা শাহিন মৃধা। এরপর ডিবির পুলিশ পরিদর্শক কাজী মো. নাসিরুল মামুন রমনা থানায় পর্নোগ্রাফি আইনে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

২৫ ডিসেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ তাদের ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করেন। রমনা থানায় পর্নোগ্রাফি আইনে করা মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ওইদিন ঢাকা মহানগর হাকিম মইনুল ইসলাম তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এরপর ১১ জানুয়ারি ঢাকা মহানগর হাকিম শাহিনুর রহমানের আদালতে তাদের আইনজীবী জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে এক হাজার টাকা মুচলেকায় বিচারক জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।

কারাগার থেকে বের হয়ে আবারও সব অতীত ভুলে সিনেমা নির্মাণে মনোনিবেশ করেছেন এই নির্মাতা। ঘোষণা দিলেন ২০২১ সালে পাঁচটি চলচ্চিত্র নির্মাণের। আজ শনিবার (১৭ জানুয়ারি) এক স্ট্যাটাসে মামুন এই ঘোষণা দেন। সেখানে তিনি ছবির নাম উল্লেখ করে বলেন, ‘বলে রাখি এবছর ৫টি সিনেমা বানাবো। সেগুলো হলো ‘প্যাড’, ‘ক্রেজি’, ‘ঈদ মোবারক’, ‘ভাইজান ২’ ও ‘পাইলট’।

অনন্য মামুন আটক হওয়ার পর তার সদস্য পদ বাতিল করবে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি, এমনটাই শোনা যাচ্ছিলো। সেই প্রসঙ্গ টেনে মামুন তার স্ট্যাটাসে বলেন, ‘কথাটা ক্লিয়ার করে বলি, পরিচালক সমিতির সদস্যপদ না থাকলে সিনেমা বানাতে পারবো না কথাটি সত্য নয়, পরিচালক সমিতির সদস্য পদ না থাকলে আমি পরিচালক সমিতির সুযোগ সুবিধা পাবো না।

২০১৬ সালে অস্তিত্ব সিনেমায় অভিনয়ের জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পায় নুসরাত ইমরোজ তিশা , এবং ২০১৯ সালে তারিক আনম খান জাতীয় পুরস্কার পান আবার বসন্ত সিনেমার জন্য, সিনেমাগুলো আমার পরিচালনায়। ইনশাআল্লাহ এবার নবাব এলএলবি সিনেমাতেও অনেক পুরস্কার আসবে।’

তিনি মামলা প্রসঙ্গ টেনে বলেন, ‘আমার মামলাটা শেষ হয়নি তাই মামলা নিয়ে কথা বলতে চাই না। সম্মান জানাই গুলজার ভাই, খোকন ভাই, লিপু ভাই খসরু ভাইকে। আর একটা কথা- নেতা কাকে বলে সেটা জানতে হলে এসএ হক অলিক ও শহীদ্দুজামান সেলিম ভাইয়ের কাছ থেকে শিখার আছে। আমি দেখেছি কোন কারণ ছাড়া তারা আমাকে কত হেল্প করছে..আমি পরিচালক সমিতিকে সম্মান করি কিন্তু কিছু হিংসাপরায়ণ পরিচালককে না।’

এলএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]