অস্কারজয়ী অভিনেত্রী ক্লোরিস লিচম্যানের মৃত্যু

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:১৫ এএম, ২৮ জানুয়ারি ২০২১

অস্কারজয়ী কিংবদন্তি হলিউড অভিনেত্রী ক্লোরিস লিচম্যান (৯৪) মারা গেছেন। বুধবার (২৭ জানুয়ারি) যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় নিজ বাড়িতে ঘুমের মধ্যে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

ক্লোরিস লিচম্যানের মুখপাত্র মনিক মস বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বার্তা সংস্থা এপিকে জানান, ‘ক্লোরিস লিচম্যান ঘুমের মধ্যে মারা গেছেন। মৃত্যুর সময় তার মেয়ে দিনাহ এনগ্লান্ড পাশে ছিলেন।’

একজন সফল কমেডিয়ান ছিলেন ক্লোরিস লিচম্যান। সাত দশকের বেশি সময়ের কর্মজীবনে রেকর্ড সংখ্যক ৯টি প্রাইমটাইম এমি পুরস্কার (জুলিয়া লুই-ড্রাইফাসের সাথে যৌথভাবে), একটি ডেটাইম এমি পুরস্কার, একটি একাডেমি পুরস্কার, একটি গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার ও একটি বাফটা পুরস্কার অর্জন করেছেন লিচম্যান। তিনি ১৯৪৬ সালে মিস শিকাগো হিসেবে ২০তম মিস আমেরিকা সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন এবং শীর্ষ ১৬ প্রতিযোগীর মধ্যে ছিলেন।

jagonews24

১৯৭১ সালে দ্য লাস্ট পিকচার শো চলচ্চিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে একাডেমি পুরস্কার ও বাফটা পুরস্কার অর্জন করেন লিচম্যান। তিনি সত্তরের দশকে সিবিএস চ্যানেলের দ্য ম্যারি টাইলার মুর শো ও এর স্পিন অফ ফিলিস অনুষ্ঠানে ফিলিস লিন্ডস্ট্রম চরিত্রে অভিনয় করেন।

ফিলিস ধারাবাহিকে তার কাজের জন্য গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার অর্জন করেন লিচম্যান। এছাড়া তিনি ইয়ং ফ্রাঙ্কেনস্টাইন-সহ (১৯৭৪) মেল ব্রুক্স পরিচালিত তিনটি চলচ্চিত্র, ১৯৮৬-৮৮ সাল পর্যন্ত এনবিসির দ্য ফ্যাক্টস অব লাইফ ও দ্য বেভারলি হিলবিলিজ (১৯৯৩) এ ডেইজি মে মোজেস চরিত্রে কাজ করেন।

২০০০-এর দশকে ফক্স চ্যানেলের ম্যালকম ইন দ্য মিডল সিটকমে ইডা ও ২০০৮ সালে বব স্যাগেটের কমেডি সেন্ট্রাল রোস্ট-এ দেখা যায় লিচম্যানকে। ২০০৮ সালে তিনি এবিসি চ্যানেলের রিয়্যালিটি প্রতিযোগিতা ধারাবাহিক ড্যান্সিং উইথ দ্য স্টারস-এর সপ্তম মৌসুমের একজন প্রতিযোগী ছিলেন এবং তার যুগল ছিলেন কর্কি বালাস।

jagonews24

২০১০ থেকে ২০১৪ সালে তিনি ফক্স চ্যানেলের সিটকম রাইজিং হোপ-এ ম ম চরিত্রে এবং ২০১৭ সাল থেকে তিনি আমেরিকান গডস-এ জোরইয়া ভেচেরনায়া চরিত্রে অভিনয় করেছেন।

ক্লোরিস লিচম্যান ১৯২৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের আইওয়ের ডেস মোইনসের একটি অসচ্ছল পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৫৩ পরিচালক-প্রযোজক জর্জ ইংলান্ডের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। তাদের সংসারে পাঁচ সন্তান রয়েছে।

এমএসএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]