দর্শক গ্যালারি ফাঁকা রেখে হবে ঈদের ‘ইত্যাদি’?

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:০৩ পিএম, ১০ মে ২০২১

ঈদ আর ঈদের ইত্যাদি দু’টি যেনো একই সূত্রে গাঁথা। দীর্ঘ তিন দশক ধরে ইত্যাদি ঈদের ঐতিহ্যে পরিণত হয়েছে। ঈদ এলেই টিভি দর্শকরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করেন তাদের প্রিয় এই অনুষ্ঠানটি দেখার জন্য। প্রতি ঈদেই গ্যালারি উপচে পড়া হাজার হাজার দর্শকের মুখরিত মঞ্চে হানিফ সংকেত দর্শকদের জানান ঈদ মোবারক এবং সাদর সম্ভাষণ। থাকে বর্ণাঢ্য আয়োজন।

তবে এবারের ‘ইত্যাদি’র সেই চিরচেনা চিত্রে কিছুটা ব্যতিক্রম ঘটবে। কারণ করোনা ভাইরাস। এভাবেই হানিফ সংকেতের ফেসবুক পেজে নতুন ‘ইত্যাদি’র আভাস দেয়া হলো। ধারণা করা হচ্ছে, এবার দর্শক গ্যালারি ফাঁকা রেখেই অনুষ্ঠিত হবে ‘ইত্যাদি’। যদি এমনটা হয় তবে তা হবে ‘ইত্যাদি’র জন্য নতুন কিছু। দর্শকের জন্যও এই ‘ইত্যাদি’ স্পেশাল হয়ে থাকবে।

করোনা সংক্রমণে পৃথিবীর অনেক কিছুই বদলে গেছে, থমকে গেছে। অনেক কিছু বন্ধ হয়ে গেছে সময়ের কাছে হার মেনে। বাংলাদেশের মানুষের প্রাণের অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’ বন্ধ হয়নি। করোনার মধ্যেও হাজির হবেন হানিফ সংকেত তার চিরচেনা উপস্থাপনা নিয়ে।

তার ফেসবুকে লেখা হয়েছে, ‘ঈদের পরদিন ঈদের ‘ইত্যাদি’র যে ঐতিহ্যবাহী দৃশ্যের জন্য দর্শকরা অপেক্ষা করেন তা থেকে দর্শকরা যাতে নিরাশ না হয় সেজন্য এবারও ভিন্নভাবে সাজানো হয়েছে ঈদের বিশেষ ‘ইত্যাদি’।

ইত্যাদি রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। নির্মাণ করেছে ফাগুন অডিও ভিশন, স্পন্সর করেছে কেয়া কসমেটিকস লিমিটেড। ইত্যাদি একযোগে প্রচারিত হবে বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ড-এ ঈদের পর দিন রাত ০৮টার বাংলা সংবাদের পর।’

এলএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]